মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১১ আষাঢ় ১৪৩১

সার্চ কমিটিকে ‘ভোট চুরির প্রজেক্ট’ বলছেন বিএনপি নেতারা

প্রকাশ: ৫ ফেব্রুয়ারি ২০২২ | ৯:৫৩ অপরাহ্ণ আপডেট: ৫ ফেব্রুয়ারি ২০২২ | ৯:৫৩ অপরাহ্ণ
সার্চ কমিটিকে ‘ভোট চুরির প্রজেক্ট’ বলছেন বিএনপি নেতারা

নতুন নির্বাচন কমিশন (ইসি) গঠনে প্রধান নির্বাচন কমিশনারসহ অন্যান্য কমিশনারদের নিয়োগ দিতে গঠিত অনুসন্ধান (সার্চ) কমিটিকে আওয়ামী লীগ সরকারের ‘ভোট চুরির প্রজেক্ট’ বলে অভিহিত করেছেন বিএনপি নেতারা। শনিবার (৫ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে সাংবাদিকদের কাছে তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় দলের নেতারা এ মন্তব্য করেন।

দুপুরে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের এক আদেশে জানানো হয়, সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের বিচারপতি ওবায়দুল হাসানকে আহ্বায়ক করে ছয় সদস্যবিশিষ্ট সার্চ কমিটি গঠন করা হয়েছে। আইন অনুযায়ী কমিটিকে ১৫ কার্যদিবসের মধ্যে রাষ্ট্রপতির কাছে সুপারিশ পেশ করতে হবে।

সার্চ কমিটি নিয়ে আদেশ জারির পরই বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু বলেন, আমরা মনে করি এ সরকারের অধীনে কোনো নির্বাচন সুষ্ঠু হবে না। সার্চ কমিটি হোক আর যে নির্বাচন কমিশনই হোক, এ সরকার থাকলে আমরা কোনো নির্বাচনে যাবো না।

স্থায়ী কমিটির আরেক সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, নির্বাচন কমিশন গঠনে সার্চ কমিটি ঘোষণা আওয়ামী লীগ সরকারের ভোট চুরির প্রজেক্ট। সার্চ কমিটি গঠনে রাজনৈতিক দলগুলোর সংশ্লিষ্টতা নেই। জনগণ ও গণতন্ত্রের কল্যাণে আসবে না, এমন সার্চ কমিটি নিয়ে বিএনপি ভাবছে না।
দলটির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু বলেন, সার্চ কমিটি হলো মানুষকে বিভ্রান্ত করা। আওয়ামী লীগের বাইরে সব রাজনৈতিক দল নির্বাচনকালীন দলনিরপেক্ষ সরকার প্রত্যাশা করে। দলনিরপেক্ষ সরকার ক্ষমতায় না থাকলে প্রশাসন, নির্বাচন কমিশন কোনোটাই নিরপেক্ষভাবে কাজ করতে পারে না। এটা লোক দেখানো সার্চ কমিটি, ভালো কিছু প্রত্যাশা করা যায় না।

সম্পর্কিত পোস্ট