বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ১০ শ্রাবণ ১৪৩১

শূন্য হাতে বাংলাওয়াশ সিরিজ থেকে বিদায় বাংলাদেশের

প্রকাশ: ১৩ অক্টোবর ২০২২ | ৩:২৪ অপরাহ্ণ আপডেট: ১৩ অক্টোবর ২০২২ | ৩:২৪ অপরাহ্ণ
শূন্য হাতে বাংলাওয়াশ সিরিজ থেকে বিদায় বাংলাদেশের

বাংলা ওয়াশ ত্রিদেশীয় সিরিজে ব্যর্থতার ষোলোকলা পূর্ণ করল বাংলাদেশ। গ্রুপ পর্বে চার ম্যাচের সবকটিতে হেরে ‘বাংলাওয়াশ’ হয়েছে সাকিব আল হাসানের দল। নিজেদের শেষ ম্যাচে বড় স্কোর গড়েও বোলারদের উদারহস্তে রান খরচে পাকিস্তানের কাছে ৭ উইকেটে হারল বাংলাদেশ।

ফলে ভঙ্গুর আত্মবিশ্বাস নিয়ে আসছে অস্ট্রেলিয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলতে যাচ্ছে টাইগাররা। টস জিতে ব্যাট করতে নেমে লিটন কুমার দাস ও দলপতি সাকিব আল হাসানের অর্ধশতকে ৬ উইকেটে ১৭৩ রান তুলে বাংলাদেশ। জবাবে অধিনায়ক বাবর আজম, মোহাম্মদ রিজওয়ানের অর্ধশতক আর মোহাম্মদ নওয়াজের ঝোড়ো ব্যাটিংয়ে ৩ উইকেটে ১৭৭ রান করে পাকিস্তান।

বৃহস্পতিবার হ্যাগলি ওভালে দলীয় ৭ রানে ওপেনার সৌম্য সরকারের উইকেট হারায় টাইগাররা। ৪ রানে নাসিম শাহর শিকার হন এই ওপেনার। এরপর দ্রুত সাজঘরে ফেরেন আরেক ওপেনার নাজমুল হোসেন শান্ত (১২)।

লিটন কুমার দাস ও অধিনায়ক সাকিবের দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে চাপ কাটিয়ে ওঠে বাংলাদেশ। দুইজনের ৫৫ বলে ৮৮ রানের জুটিতে বড় সংগ্রহের ভীত পায় লাল-সবুজরা।

৩১ বলে ক্যারিয়ারের সপ্তম অর্ধশতক তুলে নেন লিটন। দুই ছক্কা ও ৪ চারে ৪২ বলে ৬৯ রানে আউট হন ডানহাতি এই ব্যাটার। এরপর টানা দ্বিতীয় ম্যাচে অর্ধশতক করে ৪২ বলে ৭ চার ও ৩ ছয়ে ৬৮ রান করে আউট হন সাকিব।

চ্যালেঞ্জিং স্কোর তাড়া করতে নেমে শতরানের জুটি গড়েন দুই ওপেনার বাবর আজম ও মোহাম্মদ রিজওয়ান। তবে এতে কম অবদান ছিল না বাংলাদেশের বোলার ও ফিল্ডারদের। বাজে বোলিংয়ের সঙ্গে কোচ মিস করেছেন সাকিব-সাইফউদ্দিনরা।

রিজওয়ান সর্বোচ্চ ৬৯ রান করেন। এ ছাড়া অধিনায়ক বাবর ৫৫ রানে আউট হলেও নওয়াজ ৪৫ রানে অপরাজিত ছিলেন। বাংলাদেশের হাসান মাহমুদ নেন ২ উইকেট।

সম্পর্কিত পোস্ট