বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ৫ বৈশাখ ১৪৩১

মেক্সিকো-বাংলাদেশ সংসদীয় মৈত্রী গ্রুপ গঠন

প্রকাশ: ৭ এপ্রিল ২০২২ | ৩:৫৭ অপরাহ্ণ আপডেট: ৭ এপ্রিল ২০২২ | ৩:৫৭ অপরাহ্ণ
মেক্সিকো-বাংলাদেশ সংসদীয় মৈত্রী গ্রুপ গঠন

মেক্সিকোর পার্লাামেন্টে মেক্সিকো-বাংলাদেশ সংসদীয় মৈত্রী গ্রুপ গঠন করা হয়েছে।

বুধবার (৬ এপ্রিল) মেক্সিকো সময় অনুযায়ি সে দেশের পার্লাামেন্টের ডেপুটি কক্ষে রোজালিনা ডোমিং গেজ ফ্লোরেস এমপিকে সভাপতি করে ৯ সদস্য বিশিষ্ট দুই দেশের সংসদীয় এ মৈত্রী গ্রুপ গঠন করা হয়। এটি বাংলাদেশ ও মেক্সিকোর মধ্যেকার ক্রমবর্ধমান অংশীদারত্বের ক্ষেত্রে একটি গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ।

ডেপুটি রোজালিনা ডোমিং গেজ ফ্লোরেস তার বক্তব্যে দুই দেশের মধ্যকার সাদৃশ্যের কথা উল্লেখ করেন ও সংস্কৃতি, অর্থনীতি, পরিবেশ, শিল্প, প্রযুক্তি ও রাজনীতির ক্ষেত্রে অংশীদারত্ব প্রতিষ্ঠার ওপরে গুরুত্বারোপ করেন।

এ উদ্যোগ নেওয়ার জন্য মেক্সিকোর পার্লামেন্টকে ধন্যবাদ জানিয়ে রাষ্ট্রদূত আবিদা ইসলাম বলেন, আশা করছি শিগগিরই বাংলাদেশের সংসদ থেকে বাংলাদেশ-মেক্সিকো সংসদীয় মৈত্রী গ্রুপ প্রতিষ্ঠা করা হবে।

তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশ ও মেক্সিকো বিশ্বের তিন দশমিক ৮ শতাংশ জনগণকে ধারণ করে। তাই উভয় দেশের নির্বাচিত প্রতিনিধিদের সমন্বয়ে এমন একটি প্ল্যাটফর্ম গড়ে তোলা যেতে পারে, যা শক্তিশালী বন্ধুত্বর্পূণ সম্পর্ক গড়ে তোলার পাশাপাশি দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ককে এক নতুন উচ্চতায় নিয়ে যাওয়ার ক্ষেএে সহায়ক ভূমিকা পালন করবে।

পরে সংসদীয় ফ্রেন্ডশিপ গ্রুপের সদস্য ও আইনপ্রণেতা মার্থা অ্যালিসিয়া আরেওলা মার্টিনেজ, আইনপ্রণেতা মার্কোস রোসেন্দো মেদিনা ফিলিগ্রানা, আইনপ্রণেতা হোয়ানিতা গেররা মেনা ও আইনপ্রণেতা সান্তিয়াগো তোরেব্লাঙ্কা এঙ্গেল তাদের বক্তব্যে বাংলাদেশ ও মেক্সিকোর মধ্যে একটি শক্তিশালী সম্পর্ক গড়ে তোলার ওপর গুরুত্ব দেন। যার ভিত্তি হবে সংহতি ও পারস্পরিক শ্রদ্ধাবোধ। এছাড়া, তারা দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য, পর্যটন, জলবায়ু পরির্বতনের বিরূপ প্রভাব মোকাবিলায় অভিজ্ঞতা বিনিময় ও নারীর ক্ষমতায়নসংক্রান্ত বিষয়ে একসঙ্গে কাজ করার আগ্রহ প্রকাশ করেন।

মেক্সিকোর পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এশিয়া প্যাসিফিক বিভাগের পরিচালক ভ্লাদিমির কার্লোস রুবিও বাংলাদেশকে অভিনন্দন জানান ও মেক্সিকো-বাংলাদেশ পার্লামেন্টারি ফ্রেন্ডশিপ গ্রুপকে মেক্সিকোর পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে সব ধরনের সহযোগিতার দেওয়ার আশ্বাস দেন। পরে ডেপুটি রোজালিনা ডোমিংগেজ ফ্লোরেসের আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেন ও গঠনমূলক আইনে স্বাক্ষরের মাধ্যমে এবং সংসদের বিশেষ পরিদর্শক বইয়ে রাষ্ট্রদূত আবিদা ইসলাম সই করেন।

সংলাপ-০৭/০৪/০০৫/আ/আ

সম্পর্কিত পোস্ট