বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

মালয়েশিয়ায় বিএসইউএমের সভাপতি আলমগীর সম্পাদক নাসিম

প্রকাশ: ২ এপ্রিল ২০২২ | ২:৫৫ অপরাহ্ণ আপডেট: ২ এপ্রিল ২০২২ | ২:৫৫ অপরাহ্ণ
মালয়েশিয়ায় বিএসইউএমের সভাপতি আলমগীর সম্পাদক নাসিম

বাংলাদেশি স্টুডেন্টস ইউনিয়ন মালয়েশিয়ার (বিএসইউএম) নতুন কমিটি গঠন করা হয়েছে। এতে সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন আলমগীর চৌধুরী আকাশ এবং সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন মো. নাসিম আরাফাত।

বৃহস্পতিবার (৩১ মার্চ) রাত ১০টায় ভার্চুয়ালি বিএসইউএম’র-২০২২ কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হয়। বিএসইউএমের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মির্জা মোস্তাফিজুর রহমান অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন।

সংগঠনটির সাবেক সভাপতি মো. বোরহান উদ্দীনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বিএসইউএমের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও এক্সট্রা অর্ডিনারি কমিটির প্রধান ড. মো. মুহিউদ্দিন মাহি। উপদেষ্টামণ্ডলীর মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মাহসা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ও বিএসইউএমের উপদেষ্টা আবুল বাশার, ড. জাহিদুল ইসলাম, সুরাইয়া নাহার, সাবেক সভাপতি মো. রবিউল ইসলাম, সাবেক সভাপতি বাশির উদ্দীন, সাবেক সভাপতি ড. ফয়জুল হক, সাবেক সভাপতি জহির সাদাতসহ কমিটির অন্যান্য সদস্যরা।

কাউন্সিলে সর্বসম্মতিক্রমে নবগঠিত কমিটিতে ইন্টারন্যাশনাল ইসলামিক বিশ্ববিদ্যালয় মালয়েশিয়ায় পোস্ট গ্র্যাজুয়েট শিক্ষার্থী আলমগীর চৌধুরী আকাশকে সভাপতি ও একই বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যাচেলরে অধ্যয়নরত মো. নাসিম আরাফাতকে সাধারণ সম্পাদক ঘোষণা করা হয়। বিএসইউএম কাউন্সিল-২০২২ এর নব নির্বাচিত সভাপতি ও সম্পাদককে শপথ বাক্য পাঠ করান বিএসইউএমের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও এক্সট্রা অর্ডিনারি কমিটির প্রধান ড. মো. মুহিউদ্দিন মাহি।

নবনিযুক্ত সভাপতি ২০২১ সালের বিএসইউএমের কমিটির সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। এছাড়াও তিনি পোস্ট গ্রাজুয়েট স্টুডেন্টস সোসাইটি আইআইইউএমের নির্বাচিত সেক্রেটারি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। নতুন মনোনিত সাধারণ সম্পাদক মো. নাসিম আরাফাত ২০২১ সালের বিএসইউএমের কোষাধ্যক্ষ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

বিএসইউএমের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও এক্সট্রা অর্ডিনারি কমিটির প্রধান ড. মো. মুহিউদ্দিন মাহি সদ্য সমাপ্ত ২০২১ কমিটির কাজে সন্তোষ প্রকাশ করেন। নতুন কমিটিকে এ সফলতার ধারা অব্যাহত রাখার আহ্বান জানান তিনি। এছাড়া মাহসা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ও বিএসইউএমের উপদেষ্টা আবুল বাশার, ড. জাহিদুল ইসলাম, সুরাইয়া নাহার, সাবেক সভাপতি মো. রবিউল ইসলাম, সাবেক সভাপতি বাশির উদ্দীন, সাবেক সভাপতি ড. ফয়জুল হক, সাবেক সভাপতি জহির সাদাত তাদের বক্তব্যে বিএসইউএমের বিভিন্ন কাজের প্রশংসা করেন।

এ সময় মালয়েশিয়ায় অধ্যয়নরত বাংলাদেশিদের একই ছাতার নিচে এনে মালয়েশিয়ার বুকে দেশের ভাবমূর্তি উজ্বলে ভূমিকা রাখার জন্য বিএসইউএমকে ধন্যবাদ জানানোর পাশাপাশি নিজেদের দক্ষতা, দেশের উন্নয়নে আরও বেশি ভূমিকা রাখার আহ্বান জানান বক্তারা। আগামী ৭ কার্যদিবসের মধ্যে নবনির্বাচিত সভাপতি ও সম্পাদককে পূর্ণাঙ্গ কমিটির প্রস্তাবনা এক্সট্রা অর্ডিনারি কমিটির কাছে উপস্থাপনের অনুরোধ করেন।

সদ্য বিদায়ী সভাপতি মো. বোরহান উদ্দীন বলেন, বিএসইউএম হলো একটি নিয়মতান্ত্রিক ও গতিশীল সংগঠন। ভবিষ্যতেও এ সংগঠনের নিয়মতান্ত্রিকতা অব্যাহত থাকবে। ২০২১ কমিটির বিভিন্ন কার্যক্রম তুলে ধরে নতুন কমিটিকে একজন উপদেষ্টা হিসেবে সর্বাত্মক সহযোগিতার আশ্বাস দেন এ সাবেক সভাপতি।

তিনি বলেন, বিএসইউএম বাংলাদেশি ছাত্র-ছাত্রীদের সহযোগিতা, জ্ঞান-বিজ্ঞান, শিক্ষা-গবেষণা ও সার্বিক কল্যাণের জন্য সব সময় কাজ করে যাবো।

নবনির্বাচিত সভাপতি আলমগীর চৌধুরী বলেন, বিএসইউএমের সদস্যদের দেশ ও জাতির প্রতি অনেক দায়বদ্ধতা রয়েছে। বিদেশে অধ্যয়নরত ছাত্রছাত্রীদের উচ্চশিক্ষার মাধ্যমে নিজেদের দক্ষ হিসেবে গড়ে তুলে দেশের স্বার্থে কাজ করার আহ্বান জানান তিনি। বিএসইউএমের এক্সিকিউটিভ কমিটির সদস্য, উপদেষ্টা ও এক্সট্রা অর্ডিনারি কমিটির সবাইকে নিয়ে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে বিএসইউএমকে সামনে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন সভাপতি।

২০১৪ সালে প্রতিষ্ঠিত বাংলাদেশি স্টুডেন্টস ইউনিয়ন মালয়েশিয়া (বিএসইউএম) মালয়েশিয়ায় অধ্যয়নরত প্রায় ২০ হাজার ছাত্রছাত্রীদের সর্ববৃহৎ অরাজনৈতিক সংগঠন। বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের দল, মত, ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে একতাবদ্ধ করার পাশাপাশি শিক্ষা ও অন্যান্য কাজে দক্ষ হিসেবে গড়ে তুলতে সংগঠনটি বিভিন্ন সেমিনার, ক্যারিয়ার ক্যাম্প, ক্রীড়া প্রতিযোগিতা, সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতাসহ বিভিন্ন ধরনের কর্মসূচির আয়োজন করে আসছে।

এসব কর্মসূচিতে বিশ্বখ্যাত দেশি-বিদেশি স্কলার, গবেষক, ইয়ুথ লিডারসহ বিভিন্ন দেশের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকেন। মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশের উন্নয়ন-অগ্রগতি ও বিভিন্ন বিভাগে বাংলাদেশিদের অবদান তুলে ধরতেও বিএসইউএম কাজ করে যাচ্ছে।

সংলাপ-০২/০৪/০০২/আ/আ

সম্পর্কিত পোস্ট