শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১

ভারত রাশিয়ার তেল কিনলে আপত্তি নেই যুক্তরাষ্ট্রের

প্রকাশ: ১৬ মার্চ ২০২২ | ৮:৩০ অপরাহ্ণ আপডেট: ১৬ মার্চ ২০২২ | ৮:৩০ অপরাহ্ণ
ভারত রাশিয়ার তেল কিনলে আপত্তি নেই যুক্তরাষ্ট্রের

ভারত ডিসকাউন্ট মূল্যে রাশিয়ার কাছ থেকে তেল কিনলে আপত্তি নেই যুক্তরাষ্ট্রের। এতে মার্কিন নিষেধাজ্ঞা ভঙ্গ হবে না বলে জানিয়েছেন হোয়াইট হাউজের মুখপাত্র জেন সাকি। তবে রাশিয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়ে যুক্তরাষ্ট্র যে বার্তা দেওয়ার চেষ্টা করছে, সবার সেটি মেনে চলা উচিত বলে মনে করেন তিনি। বার্তা সংস্থা পিটিআই’র বরাতে এ তথ্য জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি।

মঙ্গলবার (১৫ মার্চ) নিয়মিত সংবাদ সম্মেলনে হোয়াইট হাউজের মুখপাত্র বলেছেন, সব দেশের প্রতি আমাদের বার্তা একই। আমরা যেসব নিষেধাজ্ঞা দিয়েছি ও সুপারিশ করেছি, তা মেনে চলুন।

এদিন জেন সাকিকে প্রশ্ন করা হয়েছিল, ভারত যদি ডিসকাউন্টে রাশিয়ার তেল কেনে তাহলে কী হবে? জবাবে তিনি বলেন, আমার মনে হয় না, এটি নিষেধাজ্ঞা লঙ্ঘন করবে।

যুক্তরাষ্ট্রের এ কর্মকর্তা বলেন, তবে এটাও ভাবা দরকার, ইতিহাসের বইতে বর্তমান সময় নিয়ে যা লেখা হবে, সেখানে আপনারা কোন পাশে থাকতে চান? রাশিয়ার নেতৃত্বকে সমর্থন করার অর্থ, তাদের আগ্রাসনকে সমর্থন করা। এর প্রতিক্রিয়া অবশ্যই ভয়ংকর।

ভারত রাশিয়া থেকে তেল কেনার বিষয়ে জেন সাকি আপত্তি না করলেও এ নিয়ে তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন মার্কিন কংগ্রেসের সদস্য ড. অ্যামি বেরা।

তিনি বলেছেন, খবর যদি সঠিক হয় এবং ভারত ডিসকাউন্ট মূল্যে রাশিয়ার তেল কেনার সিদ্ধান্ত নেয়, তবে নয়াদিল্লি ইতিহাসের একটি গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্তে ভ্লাদিমির পুতিনের পাশে থাকার পথ বেছে নেবে, যখন বিশ্বজুড়ে বিভিন্ন দেশ ইউক্রেনের জনগণের সমর্থনে ও রাশিয়ার ভয়াবহ আগ্রাসনের বিরুদ্ধে একত্রিত হয়েছে।

ভারতীয়-আমেরিকান বংশোদ্ভূত এ রাজনীতিবিদ বলেন, বিশ্বের বৃহত্তম গণতান্ত্রিক দেশ ও কোয়াডের নেতা হিসেবে ভারতের দায়িত্ব রয়েছে, প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে পুতিন এবং তার আক্রমণকে সমর্থন না করার বিষয়টি নিশ্চিত করা।

রাশিয়া-ইউক্রেন সংঘাত নিয়ে ভারত এখন পর্যন্ত সরাসরি কারও পক্ষ নেয়নি। তারা দুই পক্ষকেই আলোচনার মাধ্যমে বিরোধ মিটিয়ে নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে। তবে জাতিসংঘে রুশ আগ্রাসনের নিন্দাপ্রস্তাবে সমর্থন দেয়নি ভারত। তারা এতে ভোটদানে বিরত ছিল।

সংলাপ-১৬/০৩/০১০/আ/আ

সম্পর্কিত পোস্ট