শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০

বিকাশের সঙ্গে গ্রামীণফোনের পার্টনারশিপ

প্রকাশ: ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ | ২:৫৫ অপরাহ্ণ আপডেট: ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ | ২:৫৫ অপরাহ্ণ
বিকাশের সঙ্গে গ্রামীণফোনের পার্টনারশিপ

দেশের সবচেয়ে বড় এমএফএস সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান বিকাশের সঙ্গে পার্টনারশিপ করেছে ডিজিটাল বাংলাদেশের কানেক্টিভিটি পার্টনার গ্রামীণফোন। এর মাধ্যমে গ্রামীণফোন বিকাশকে নিজেদের পছন্দের পেমেন্ট পার্টনার হিসেবে ঘোষণা দিয়েছে। এখন গ্রামীণফোনের গ্রাহকরা সহজেই মাইজিপি অ্যাপ থেকে একটি ট্যাপে বিকাশের মাধ্যমে দ্রুত ও স্বাচ্ছন্দ্যদায়ক উপায়ে পেমেন্ট সুবিধা উপভোগ করতে পারবেন।

বুধবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর জিপিহাউজে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে নতুন এই সেবার উদ্বোধন করেন গ্রামীণফোনের প্রধান নির্বাহী ইয়াসির আজমান এবং বিকাশের প্রধান নির্বাহী কামাল কাদীর। অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন গ্রামীণফোনের চিফ ডিজিটাল অ্যান্ড স্ট্র্যাটেজি অফিসার সোলায়মান আলম ও চিফ মার্কেটিং অফিসার মোহাম্মদ সাজ্জাদ হাসিব এবং বিকাশের চিফ প্রোডাক্ট অ্যান্ড টেকনলজি অফিসার মোহাম্মদ আজমল হুদা ও প্রতিষ্ঠানটির চিফ কমার্শিয়াল অফিসার আলী আহম্মেদসহ উভয় প্রতিষ্ঠানের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

দেশে প্রথমবারের মতো চালু হওয়া এক ট্যাপে পেমেন্টের এই সুযোগ গ্রাহকদের ডিজিটাল লাইফস্টাইলকে করে তুলবে আরো স্বাচ্ছন্দ্যদায়ক, নিরাপদ ও ঝামেলাহীন। গ্রাহক বিকাশকে একবার পছন্দের পেমেন্ট অপশন হিসেবে যুক্ত করে নিলে ওটিপি বা পিন ছাড়াই এক ট্যাপে ডিজিটাল কনসেন্ট (সম্মতি) দিয়ে স্বয়ংক্রিয়ভাবে পেমেন্ট সম্পন্ন করতে পারবেন।

সেবাটি চালু করতে, প্রথমবার মাইজিপি অ্যাপে বিকাশকে পছন্দের পেমেন্ট পার্টনার হিসেবে যুক্ত করে নিতে হবে। পরের ধাপে ‘অ্যাড বিকাশ অ্যাকাউন্ট’-এ ক্লিক করে ‘আই অ্যাগ্রি’ তে ক্লিক করে বিকাশ অ্যাকাউন্ট নম্বর লিখতে হবে। এরপর ওটিপি ও পিন নম্বর দিলে (শুধুমাত্র প্রথমবার) পছন্দের পেমেন্ট পার্টনার হিসেবে যুক্ত হয়ে যাবে বিকাশ।

এ নিয়ে গ্রামীণফোনের প্রধান নির্বাহী ইয়াসির আজমান বলেন, ডিজিটালাইজেশনের এই যুগে, আমাদের গ্রাহকদের ডিজিটাল লাইফস্টাইলের প্রয়োজনে তাদের আরও স্বাচ্ছন্দ্যদায়ক ও উদ্ভাবনী সমাধান প্রয়োজন। মাইজিপি-তে আমাদের গ্রাহকদের পেমেন্ট অভিজ্ঞতা আরও সহজ, স্বাচ্ছন্দ্যদায়ক ও দ্রুতগতিতে সম্পন্ন করতে গ্রামীণফোন ও বিকাশ একসঙ্গে হয়েছে বলে আমি আনন্দিত। প্রতিষ্ঠান দু’টি সবসময় গ্রাহক-কেন্দ্রিক স্যলুশন নিয়ে আসায় বিশ্বাসী, আর এ কারণেই গ্রামীণফোন ও বিকাশ একসঙ্গে অনেক কিছু অর্জন করবে বলে আমি বিশ্বাস করি। আমাদের গ্রাহকদের জন্য ভবিষ্যতে আরও চমৎকার সব সল্যুশন নিয়ে আসার ব্যাপারে প্রত্যাশী গ্রামীণফোন।

বিকাশের প্রধান নির্বাহী কামাল কাদীর বলেন, গ্রাহক-কেন্দ্রিক দুটি প্রতিষ্ঠান তাদের নিজ নিজ গ্রাহকদের জন্য সহজেই এক ক্লিকের মাধ্যমে পেমেন্টের সুবিধা চালু করলো। তা যেন ভবিষ্যতে অন্যরাও করতে পারে, সেভাবেই আমরা কাজ করে যাবো। দিনশেষে গ্রাহকের জন্য সহজ ও সুবিধাজনক সেবা নিশ্চিত করাই আমাদের উদ্দেশ্য। গ্রাহকের কাজ যত সহজ হবে আমাদের সবার কাজ তত বেশি ত্বরান্বিত হবে। একইসঙ্গে সরকার যে ক্যাশলেস ও ডিজিটাল বাংলাদেশের উদ্যোগগুলো নিচ্ছে সেগুলোও বেগবান হবে।

এছাড়া সম্প্রতি গ্রামীণফোন ও বিকাশ গ্রাহকদের মোবাইল রিচার্জের অভিজ্ঞতার মানোন্নয়নে বেশ কিছু উদ্যোগ নিয়েছে। গ্রামীণফোনের গ্রাহকরা বিকাশ অ্যাপে জিপি মাই অফারের মাধ্যমে নিজেদের সুবিধামতো অফার সুবিধা উপভোগ করতে পারছেন। পাশাপা মোবাইল ব্যালেন্স একটি নির্দিষ্ট পর্যায়ে নেমে এলে, গ্রাহকরা এখন বিকাশ থেকে অটো রিচার্জ ফিচার ব্যবহারে করে স্বয়ংক্রিয় পদ্ধতিতে রিচার্জ সেবা গ্রহণ করতে পারছেন। আর বিকাশ অ্যাপ থেকে জিপি ফ্লেক্সিপ্ল্যান ফিচারের মাধ্যমে গ্রাহকরা তাদের নিজেদের প্রয়োজন অনুযায়ী সাশ্রয়ী মূল্যের প্যাক কাস্টমাইজ করতে পারছেন।

বিগত বছরগুলোতে আকর্ষণীয় বিভিন্ন অফারসহ গ্রাহকদের জন্য মানসম্পন্ন সেবার অভিজ্ঞতা প্রদানের মাধ্যমে দেশের ডিজিটাল ইকোসিস্টেমের অংশ হিসেবে যৌথভাবে সবচেয়ে বড় কাস্টমার বেইজ গড়ে তুলেছে গ্রামীণফোন ও বিকাশ।

সম্পর্কিত পোস্ট