শনিবার, ২ মার্চ ২০২৪, ১৯ ফাল্গুন ১৪৩০

বিএনপির ১০ ও ৩০ ডিসেম্বর ভুয়া : ওবায়দুল কাদের

প্রকাশ: ১১ জানুয়ারি ২০২৩ | ৬:৫৪ অপরাহ্ণ আপডেট: ১১ জানুয়ারি ২০২৩ | ৬:৫৪ অপরাহ্ণ
বিএনপির ১০ ও ৩০ ডিসেম্বর ভুয়া : ওবায়দুল কাদের

বিএনপির সঙ্গে পাল্টা-পাল্টি কর্মসূচি পালন করা হচ্ছে না জানিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, গতকাল আমাদের কেন্দ্র কর্মসূচি পালন করেছে, আজকে মহানগর এবং অন্যান্য সংগঠন করছে। এটা আমাদের কর্মসূচি, এখানে পাল্টা পাল্টির কোনও বিষয় নেই। কার সঙ্গে পাল্টা-পাল্টি করবো।

এসময় বিএনপির গণসমাবেশের প্রসঙ্গ টেনে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ১০ ডিসেম্বর তো এই নগরীতে বিজয় মিছিল হওয়ার কথা ছিল। ১০ ডিসেম্বর তো এমনও কথা ছিল তারেক রহমান এসে নেতৃত্ব দেবেন। ১০ ডিসেম্বর এমনও কথা ছিল বেগম জিয়া জেল থেকে এসে বিজয় মিছিলের নেতৃত্ব দেবেন, সরকারের পতন অনিবার্য। কি হলো? ১০ ডিসেম্বর ভুয়া, ৩০ ডিসেম্বর ভুয়া।

বুধবার (১১ জানুয়ারি) বিকেলে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। মিরপুর-১ নম্বর ঈদগাহ মাঠে আলোচনা সভায়টি অনুষ্ঠিত হয়।

বিএনপির তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন দাবির প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, তত্ত্বাবধায়ক ব্যবস্থাকে আদালত আদেশ দিয়ে মিউজিয়ামে পাঠিয়ে দিয়েছেন। একটা মৃত ইস্যুকে জীবন্ত করবেন? -এটা অসাংবিধানিক, অস্বাভাবিক। তত্ত্বাবধায়ক সরকার আমরা চাই না, জনগণ চায় না। বিএনপিকে এখন তত্ত্বাবধায়কের ভূত মাথা থেকে নামাতে হবে।

তিনি আরও বলেন, পৃথিবীর অন্যান্য দেশে যেভাবে নির্বাচন হয়, আমাদেরও সেভাবে হবে। সরকার শুধু রুটিন দায়িত্ব পালন করবে। শেখ হাসিনা প্রধানমন্ত্রী থাকবেন। কোনো প্রকার হস্তক্ষেপ সরকার নির্বাচনে করবে না।

এসময় সেতুমন্ত্রী বলেন, ফাইনাল খেলা আগামী বছর এই জানুয়ারি মাসে হবে।

কাদের বলেন, ময়মনসিংহ ও ফরিদপুরে বিএনপির ওপর হামলার দাবি ভুয়া, মির্জা ফখরুল ভুল তথ্য দিয়েছেন। উল্টো বিএনপির কর্মসূচি থেকে পুলিশের ওপর হামলা হয়েছে।

বিভিন্ন থানা ওয়ার্ড কমিটি দ্রুত দেওয়া নির্দেশ দিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, বজলু (শেখ বজলুর রহমান) ও কচিকে (এসএ মান্নান কচি) বলবো, যে কমিটিগুলো দেওয়া হয়নি দ্রুত দিয়ে দাও। কারণ, ভেতরে ভেতরে নেতাকর্মীরা হতাশ হলে যে জোয়ার আপনারা তুলেছেন সেটা ভাটা পড়ে যাবে।

ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ বজলুর রহমানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ড. আবদুর রাজ্জাক, আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন, শিল্প প্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদার, সাদেক খান, আগা খান মিন্টু। আলোচনা সভায়টি সঞ্চালনা করেন ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এসএ মান্নান কচি।

সম্পর্কিত পোস্ট