শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১

বাংলাদেশ দূতাবাস বাহরাইনে ঐতিহাসিক ৭ মার্চ পালন

প্রকাশ: ৯ মার্চ ২০২২ | ১:৩৮ অপরাহ্ণ আপডেট: ৯ মার্চ ২০২২ | ১:৩৮ অপরাহ্ণ
বাংলাদেশ দূতাবাস বাহরাইনে ঐতিহাসিক ৭ মার্চ পালন

বাংলাদেশ দূতাবাস বাহরাইনের উদ্যোগে যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হয়েছে ঐতিহাসিক ৭ মার্চ। স্থানীয় সময় সকাল ৯টায় রাষ্ট্রদূত ড. মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম দূতালয়ের কর্মকর্তা, কর্মচারী, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ও তার অঙ্গ-সংগঠনের নেতাদের সঙ্গে নিয়ে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন।

এরপর রাষ্ট্রদূত ড. মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম দূতালয় প্রধান এ.কে. এম. মহিউদ্দিন কায়েসকে নিয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। পরে বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।

রাষ্ট্রদূতের সভাপতিত্বে, কাউন্সেলর ও দূতালয় প্রধান এ.কে. এম মহিউদ্দিন কায়েসের পরিচালনায় অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলোওয়াত করেন মোনেম শাহরিয়ার। ৭ মার্চ উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বাণী পাঠ করা হয়।

এরপর বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণের ভিডিও চিত্র প্রদর্শন করা হয়। ৭ মার্চের গুরুত্ব ও তাৎপর্য নিয়ে আলোচনা করেন রাষ্ট্রদূত ড. মুহাম্মদ নজরুল ইসলাম।

রাষ্ট্রদূত বলেন, ৭ মার্চ আমাদের জীবনের একটা ঐতিহাসিক দিন। বঙ্গবন্ধুর সেই ঐতিহাসিক ভাষণের ১৮/১৯ মিনিটে একটা স্বাধীন সার্বভৌম দেশ হওয়ার জন্য যা নির্দেশনা দেওয়ার তার সবই ছিলো। তারই ধারাবাহিকতায় পরবর্তীতে মুক্তিযুদ্ধ পরিচালিত হয়েছে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কল্যাণেই আমরা স্বাধীন সার্বভৌম দেশ পেয়েছি, বিদেশের মাটিতে বাংলাদেশের পাসপোর্ট নিয়ে বসবাস করছি।

পরে বঙ্গবন্ধু ও তার শহীদ পরিবারের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে মোনাজাত করা হয়। মোনাজাত পরিচালনা করেন দূতাবাসের আইন সহকারী মোহাম্মদ নাজমুল হাসান।

সংলাপ /০৩/০৯/০০৬ আ/আ

সম্পর্কিত পোস্ট