বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

‘বাংলাদেশ ও আমিরাতের কূটনৈতিক সম্পর্কের পঞ্চাশ বছর উদযাপিত হবে’

প্রকাশ: ১৯ অক্টোবর ২০২৩ | ১২:১৭ অপরাহ্ণ আপডেট: ১৯ অক্টোবর ২০২৩ | ১২:১৭ অপরাহ্ণ
‘বাংলাদেশ ও আমিরাতের কূটনৈতিক সম্পর্কের পঞ্চাশ বছর উদযাপিত হবে’

 সংযুক্ত আরব আমিরাত ফেডারেল ন্যাশনাল কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট সাকর ঘোবাসের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছেন স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী।

মঙ্গলবার (১৭ অক্টোবর) সাক্ষাৎকালে তারা রোহিঙ্গা ইস্যু, প্রাকৃতিক সম্পদ, কৃষি পণ্য, জ্বালানি, বিনিয়োগ, খাদ্য নিরাপত্তাসহ দ্বিপাক্ষিক স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন।

স্পিকার বলেন, সংযুক্ত আরব আমিরাত বাংলাদেশের বন্ধু। তিনি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সংযুক্ত আরব আমিরাতে ঐতিহাসিক সফরের কথা এ সময় স্মরণ করেন। তিনি রোহিঙ্গা ইস্যুতে সংযুক্ত আরব আমিরাতকে বাংলাদেশের পাশে থাকতে অনুরোধ করেন।

সাক্ষাৎকালে আমিরাতের ফেডারেল ন্যাশনাল কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট সাকর ঘোবাস বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বের প্রশংসা করেন এবং রোহিঙ্গা ইস্যুতে সংযুক্ত আরব আমিরাত বাংলাদেশের পাশে থাকবে বলে আশ্বস্ত করেন।

রাতে আমিরাতের আবুধাবিতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মো. আবু জাফরের বাসভবনে প্রবাসীদের সাথে মতবিনিময় করেন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী।

মতবিনিময়ে সংযুক্ত আরব আমিরাতের সাথে নতুন নতুন ইনফরমেশন, কমিউনিকেশন টেকনোলজি, এনার্জি সেক্টর, কানেকটিভিটি ও ফুড সিকিউরিটিতে বাংলাদেশ যেনও আরও বেশি সহযোগিতা করতে পারে সে বিষয়ে আলোচনা হয়েছে বলেও জানান স্পিকার।

২০২৪ সালে বাংলাদেশ ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের কূটনৈতিক সম্পর্কের পঞ্চাশ বছর উদযাপিত হবে এজন্য জাতীয় সংসদে এটি উদযাপন করার প্রস্তাব আমিরাতের কাছে রেখেছেন বলে জানান স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী।

এ সময় প্রবাসীদের উদ্দেশ্যে স্পিকার বলেন, আপনারা যারা প্রবাসে আছেন আমাদের জাতীয় অর্থনীতি সমৃদ্ধির প্রত্যেকটা ক্ষেত্রে আপনাদের গুরুত্বপূর্ণ অবদান রয়েছে।

সম্পর্কিত পোস্ট