শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ৭ বৈশাখ ১৪৩১

ফেনীতে মন্দিরে হামলার ঘটনায় গণঅনশন কর্মসূচি পালিত হবে : রানা দাশ গুপ্ত

প্রকাশ: ১৮ অক্টোবর ২০২১ | ১:১৫ পূর্বাহ্ণ আপডেট: ১৮ অক্টোবর ২০২১ | ১:১৫ পূর্বাহ্ণ
ফেনীতে মন্দিরে হামলার ঘটনায় গণঅনশন কর্মসূচি  পালিত হবে : রানা দাশ গুপ্ত

ফেনীতে মন্দিরে হামলার ঘটনার ঘটনার প্রতিবাদে আগামী ২৩ অক্টোবর সারাদেশে আধাবেলা অবস্থান কর্মসূচি ও গণঅনশন কর্মসূচি ঘোষণা করেছেন বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট রানা দাশ গুপ্ত। অবস্থান কর্মসূচি ও গণঅনশনে যোগ দিতেও তিনি সবাইকে আহবান করেন।

গত রোববার ফেনীর জয়কালি মন্দিরে হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে তিনি এই ঘোষণা দেন।

রানা দাশগুপ্ত অভিযোগ করে বলেন, হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজন সাংসদ, জনপ্রতিনিধি, আওয়ামী লীগ ও দলীয় লোকজনের ওপর আস্থা হারিয়ে ফেলছে। আজ বাংলাদেশে সরকারের ভেতর সরকার, প্রশাসনে পাকিস্তানি ভর করেছে, দলের ভেতর খোন্দকার মোশতাক আছে। প্রধানমন্ত্রী তৃণমূল পর্যায়ে যে নির্দেশনা দিচ্ছেন, তা তৃণমূলে বাস্তবায়ন হচ্ছে না।

তিনি বলেন, দুর্গাপূজাকে কেন্দ্র করে সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠী সারাদেশে মন্দিরে হামলা-ভাঙচুর, হিন্দুদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে লুটপাট, অগ্নিসংযোগ ও ভাঙচুর করে প্রধানমন্ত্রীকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়েছে।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ফেনী জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সহ-সভাপতি হিরা লাল চক্রবর্তী। এতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন জেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি শুকদেব নাথ তপন।

জেলা পূজা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক অনিল নাথের সঞ্চালনায় এসময় আরও বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি মিলন কান্তি দত্ত, সাধারণ সম্পাদক নির্মল চ্যাটার্জি, সহ-সভাপতি জিপি প্রিয়রঞ্জন দত্ত।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের সহ-সভাপতি জে এল ভৌমিক, চট্টগ্রাম জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি শ্যামল পালিত, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলর জহর লাল হাজারী, নিলু নাগ, শৈবাল দাশ সুমন, পুলক খাস্তগির ও রুমকি সেনগুপ্ত উপস্থিত ছিলেন।

সম্পর্কিত পোস্ট