রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ৮ বৈশাখ ১৪৩১

ফেনীতে ফেসবুক লাইভে এসে স্ত্রীকে হত্যায় দায়ে স্বামীর মৃত্যুদণ্ড

প্রকাশ: ২২ অক্টোবর ২০২১ | ২:১৮ পূর্বাহ্ণ আপডেট: ২২ অক্টোবর ২০২১ | ২:১৮ পূর্বাহ্ণ
ফেনীতে ফেসবুক লাইভে এসে স্ত্রীকে হত্যায় দায়ে স্বামীর মৃত্যুদণ্ড

গত বছরের ১৫ এপ্রিল ফেনীতে ফেসবুকে লাইভে এসে স্ত্রী তাহমিনাকে হত্যা করে ওবায়দুল হক টুটুল। এই ঘটনায় দায়ের করা মামলায় নিহতের স্বামী টুটুলকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে আদালত। এ ছাড়া আরও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয় তাকে।

ফেনীর জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক বেগম জেবুন্নেছা বৃহস্পতিবার দুপুরে এই রায় দেন।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী হাফেজ আহমদ এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

আইনজীবী হাফেজ আহমদ জানান, দাম্পত্য কলহের জেরে তাকে কুপিয়ে হত্যা করেন স্বামী টুটল। ফেনী পৌরসভার ৮ নম্বর ওয়ার্ড বারাহিপুরের টুটুল ও কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামের তাহমিনার বিয়ে হয় প্রায় পাঁচ বছর আগে। তাদের একমাত্র সন্তানের বয়স ঘটনার সময় ছিল দেড় বছর। ঘটনার দিন ফেসবুকে লাইভে এসে টুটুল পারিবারিক অশান্তির কারণে স্ত্রীকে হত্যা বিষয়টি স্বীকার করে। শিশুকন্যাকে দেখভালের জন্য তিনি সবার কাছে অনুরোধ করে এবং হত্যার ঘটনার জন্য ক্ষমা চান।

এ ঘটনায় তাহমিনার বাবা সাহাব উদ্দিন ফেনী মডেল থানায় মামলা করেন। গ্রেফতার হয় টুটুল।

গত বছরের ১১ ডিসেম্বর টুটুলকে অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র জমা করা হয়। চলতি বছরের ১৩ জানুয়ারি শুরু হয় মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ। ১৩ জনের সাক্ষ্য নেয়া শেষে বৃহস্পতিবার রায় দেয় আদালত।

রায় ঘোষণার পর নিহত তাহমিনার বাবা সাহাব উদ্দিন বলেন, ন্যায় বিচার পেয়েছি। সরকারের প্রতি আমি কৃতজ্ঞ।

সম্পর্কিত পোস্ট