বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

ফিলিস্তিনি নাগরিকদের মৃত্যুতে বাংলাদেশে রাষ্ট্রীয় শোক

প্রকাশ: ১৯ অক্টোবর ২০২৩ | ৪:৩২ অপরাহ্ণ আপডেট: ১৯ অক্টোবর ২০২৩ | ৪:৩২ অপরাহ্ণ
ফিলিস্তিনি নাগরিকদের মৃত্যুতে বাংলাদেশে রাষ্ট্রীয় শোক

গাজাসহ ফিলিস্তিনের অন্যান্য স্থানে ইসরায়েলি দখলদার বাহিনীর সাম্প্রতিক বর্বরোচিত হামলায় ফিলিস্তিনি নাগরিকদের মৃত্যুতে শনিবার (২১ অক্টোবর) বাংলাদেশে রাষ্ট্রীয় শোক পালন করা হবে।

বৃহস্পতিবার (১৯ অক্টোবর) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

এতে বলা হয়, আগামীকাল শুক্রবার (২০ অক্টোবর) বাদ জুমা ফিলিস্তিনে নিহতদের আত্মার শান্তি ও আহতদের সুস্থতার জন্য বাংলাদেশের সকল মসজিদে বিশেষ দোয়া অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া অন্যান্য ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে বিশেষ প্রার্থনার আয়োজন করা হবে।

একই সঙ্গে আগামী শনিবার (২১ অক্টোবর) বাংলাদেশের সব সরকারি, আধাসরকারি ও স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠান এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ সকল সরকারি ও বেসরকারি ভবন এবং বিদেশস্থ বাংলাদেশ মিশনগুলোতে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত থাকবে।

এর আগে বৃহস্পতিবার (১৯ অক্টোবর) রাজধানীর তেজগাঁওয়ে সড়ক ভবনে আয়োজিত ১৫০ সেতু উদ্বোধন অনুষ্ঠানে শোক পালনের ঘোষণা দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, শনিবার ফিলিস্তিনের জন্য আমাদের শোক দিবস ঘোষণা করেছি। সেদিন আমাদের জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত থাকবে।

শেখ হাসিনা বলেন, ইসরায়েল যেভাবে হাসপাতালে হামলা করে নারী-শিশুদের হত্যা করেছে, আমরা একটার নিন্দা জানিয়েছি। দ্রুত এটা বন্ধ করতে হবে। ফিলিস্তিনিরা যেন ন্যায্য জায়গা ফেরত পায়। আমি অনুরোধ করবো, আগামী শুক্রবার জুমার পর সারা বাংলাদেশের প্রত্যেকটা মসজিদে যেন দোয়া ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে প্রার্থনা করা হয়।

তিনি বলেন, ফিলিস্তিনের আহত শিশু ও নারীদের জন্য ইতোমধ্যে আমি স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে বলে দিয়েছি, ওষুধের ব্যবস্থা করতে। তাদের জন্য কিছু শুকনো খাদ্য বা শিশুদের জন্য প্রয়োজনীয় কিছু পণ্য আমরা পাঠাবো। সেই ব্যবস্থাটাও আমরা নিচ্ছি। আমরা দুর্গত মানুষের পাশে আছি। ওআইসির যারা রাষ্ট্রদূত আছেন তাদের সঙ্গে আমরা গতকাল বৈঠকে বসেছি। সেখানে বলেছি, সবাইকে এক হয়ে ফিলিস্তিনের অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য, এতে আমরাও তাদের সঙ্গে আছি। বারবার তাদের ওপর আঘাত হানা এটা কখনও মেনে নেওয়া যায় না। এটা আমরা মানতে পারি না। আমরা যতটুকু পারি করবো।

গত ১২ দিন ধরে গাজা উপত্যকায় ইসরায়েলি বাহিনীর অব্যাহত বোমা বর্ষণে গাজায় নিহতের সংখ্যা পৌঁছেছে ৩ হাজার ৪৭৮ জনে এবং আহত হয়েছেন ১০ হাজারেরও বেশি ফিলিস্তিনি।

সম্পর্কিত পোস্ট