রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১

প্রবাসী মোহাম্মদ ইলিয়াসের পরিবারে সন্ত্রাসী হামলা—আহত ৪

প্রকাশ: ৩০ এপ্রিল ২০২৪ | ৩:১৬ অপরাহ্ণ আপডেট: ৩০ এপ্রিল ২০২৪ | ৩:১৬ অপরাহ্ণ
প্রবাসী মোহাম্মদ ইলিয়াসের পরিবারে সন্ত্রাসী হামলা—আহত ৪

নিজ পরিবারের উপর সন্ত্রাসী হামলার অভিযোগ এনেছেন মোহাম্মদ ইলিয়াস নামে এক প্রবাসী বাংলাদেশী ব্যবসায়ী। সোমবার সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইতে বসবাসরত এ প্রবাসী বাংলাদেশী গণমাধ্যমকর্মীদের কাছে এ অভিযোগ তুলে ধরেন।

ভুক্তভোগী প্রবাসী মোহাম্মদ ইলিয়াসের বাড়ী চট্টগ্রামের কর্ণফুলি থানার বোরটন ইউনিয়নের মধ্যমশাহ মিরপুর ৬ নং ওয়ার্ড মুনছেফ আলী ডাক্তারের বাড়ি। সে দীর্ঘদিন ধরে প্রবাসে ব্যবসা-বাণিজ্য করে আসছেন।

ঘটনার বিবরণে প্রবাসী মোহাম্মদ ইলিয়াস জানান, বেশ কিছুদিন থেকে স্থানীয় এক প্রভাবশালী ইউপি চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে স্থানীয় চিহ্নিত কিছু সন্ত্রাসী তার কাছে ২০ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবী করেন। চাঁদা না দিলে বাড়িঘর ছেড়ে তার পরিবারকে অন্যত্র চলে যেতে বলেন। অন্যথায় বিনামূল্যে বসতভিটা লিখে দিতে বলেন ওই ইউপি চেয়ারম্যানের নামে। ইলিয়াস এতে কর্ণপাত না করায় তার বাড়ির চারিপাশে বড়ই কাটা দিয়ে ঘেরাও করে রাখেন সন্ত্রাসীরা। এতে ইলিয়াসের পরিবার বেশ কয়েকদিন ধরে ঘর বন্দী হয়ে পড়েন।

বিষয়টি চরম আকার ধারণ করলে ইলিয়াসের কলেজ পড়ুয়া ছেলে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের প্রতিবাদ জানায়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেন সন্ত্রাসীরা। বিষয়টি সন্ত্রাসীরা স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানকে জানালে, সন্ত্রাসীদের গডফাদার খ্যাত স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের নির্দেশে ১০-১২ জনের একটি চিহ্নিত সন্ত্রাসীদল অস্ত্রে সস্ত্রে সজ্জিত হয়ে তার পরিবারের উপর হামলে পড়ে। এসময় সন্ত্রাসীরা ধারালো অস্ত্র দিয়ে ইলিয়াসের পরিবারের বিভিন্ন সদস্যকে উপর্যুপরি কোপাতে থাকে। এতে তার এইস এস সি পরীক্ষার্থী মেয়ে উম্মে হাবিবা মুক্তা (১৮), তার স্ত্রী শাহানুর আক্তার (৩৫), তার ছেলে আনোয়ারা সরকারি কলেজের ডিগ্রী পরীক্ষার্থী এনামুল হক (২৪) ও তার বড় ভাই মোঃ হারুন (৬৫) গুরুতর আহত হয়। বর্তমানে তারা চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হসপিটালে চিকিৎসারত অবস্থায় রয়েছে।

এই ঘটনায় স্থানীয় কর্ণফুলী থানায় মামলা করার জন্য গেলে পুলিশ বিষয়টি মামলা হিসেবে গ্রহণ না করে প্রাথমিক অভিযোগ হিসেবে গ্রহণ করেন।

এদিকে পুলিশ মামলা গ্রহণ না করায় চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে এই প্রবাসী পরিবারটি। প্রবাসী মোহাম্মদ ইলিয়াস জানায় এই ঘটনার পরও সন্ত্রাসীরা অনবরত প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে যাচ্ছে। প্রভাবশালী চেয়ারম্যান তাদেরকে নানাভাবে ইন্দন এবং আশ্রয়-প্রশ্রয় দিচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন প্রবাসী ইলিয়াস। তার ছেলে মেয়েদের লেখাপড়া বন্ধসহ বসত ঘর ছাড়া হয়ে গেছে বলেও জানান তিনি। বর্তমানে তারা নিরাপত্তাহীনতার কারণে চট্টগ্রাম শহরে অবস্থান করছে। এমতাবস্থায় মোহাম্মদ ইলিয়াস হোসেন প্রবাসী কল্যান মন্ত্রী, প্রবাসী হেল্পডেক্স চট্টগ্রাম স্থানীয় প্রশাসনের কাছে তার পরিবারের জানমালে নিরাপত্তায় সহযোগিতা ও অপরাধীদের বিচার চেয়েছেন।

সম্পর্কিত পোস্ট