বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ৫ বৈশাখ ১৪৩১

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকার শিশুবান্ধব সরকার : ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

প্রকাশ: ৫ মার্চ ২০২২ | ৯:০৬ পূর্বাহ্ণ আপডেট: ৫ মার্চ ২০২২ | ৯:০৬ পূর্বাহ্ণ
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকার শিশুবান্ধব সরকার : ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মোঃ ফরিদুল হক খান বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকার শিশুবান্ধব সরকার। জাতির পিতার ন্যায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও শিশুদের খুবই ভালোবাসেন। তিনি শিশুদের কল্যাণে জাতীয় শিশুনীতি-২০১১, শিশু আইন-২০১৩, শিক্ষানীতি-২০১০, স্বাস্থ্যনীতি, শিশুশ্রম আইন, বাল্যবিবাহ নিরোধ আইন-২০১৭ ইত্যাদি আইন ও নীতিমালা তৈরি করেছেন। তিনিই শিশুদের জন্য বিনামূল্যে বই প্রদান, উপবৃত্তি, মিড ডে মিল, সকল প্রাথমিক বিদ্যালয় সরকারিকরণ প্রভৃতি পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন।
প্রতিমন্ত্রী ০৩ মার্চ (বৃহস্পতিবার) সকাল ১০.০০টায় সিবিসিবি সেন্টার ঢাকায় বাংলাদেশে ওয়ার্ল্ড ভিশনের উন্নয়ন অগ্রযাত্রার ৫০ বছর পূর্তি উদযাপন এবং শিশুদের কল্যাণে ধর্মীয় নেতৃবৃন্দের ভূমিকা শীর্ষক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।
প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, দেশের সার্বিক উন্নয়ন কখনও কোন দেশের সরকারের একার পক্ষে সম্ভব নয়। দেশের উন্নয়নে বেসরকারি ব্যক্তি, সংগঠন এবং প্রাইভেট প্রতিষ্ঠানের অবদান খুবই গুরুত্বপূর্ণ। বাংলাদেশ সরকার ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশ এর মতো বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থাসমূহের ভালো ভালো কার্যক্রমকে সমর্থন করে।
তিনি বলেন, ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশ মানুষের কল্যাণে বিশেষ করে শিশুদের উন্নয়নে গত ৫০ বছর যাবত কাজ করে যাচ্ছে। শিশু শিক্ষা, শিশু সুরক্ষা ও নিরাপত্তা, শিশু স্বাস্থ্য, শিশু পুষ্টি, বাল্য বিবাহ প্রতিরোধ, শিশুশ্রম কমিয়ে আনা, জেন্ডার সমতা, নারী ক্ষমতায়ন, এলাকার দু:স্থ, অবহেলিত, প্রতিবন্ধি মানুষ সকলের কল্যাণের জন্যে অসামান্য অবদান রেখে চলেছে। বেশিরভাগ কাজে তারা সফলভাবে বিভিন্ন ধর্মের নেতৃস্থানীয় ব্যক্তিবর্গকে সম্পৃক্ত করেছে, যা সকলের কাছে প্রশংসিত হয়েছে এবং যা সমাজের কুপ্রথা দূরিকরণে ব্যাপক ভূমিকা রেখেছে।

ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশ এর সিনিয়র ডিরেক্টর মি. চন্দন জেড গমেজ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন ইসলামিক ফাউণ্ডেশন এর পরিচালক মাও.আনিছুজ্জামান শিকদার, ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশ এর ন্যাশনাল ডিরেক্টর মি. সুরেশ বার্টলেট, বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদ এর ইমাম মাও. মুফতি মিজানুর রহমান, কার্ডিনাল প্যাট্রিক ডি রোজারিও, আর্চবিশপ বিজয় এন ডি ক্রুশ, খ্রিস্টান ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের সচিব নির্মল রোজারিও, সবুজবাগ আন্তর্জাতিক বৌদ্ধ বিহার, ঢাকার ভিক্ষু সুনেন্দ্রামিত্রা থের, রাকৃষ্ণ মঠ ঢাকার স্বামী দেবাধ্যনান্দ, ন্যাশনাল কাউন্সিল অব চার্চেসব ইন বাংলাদেশ এর সভাপতি বিশপ স্যামুয়েল এস মানকিন, ন্যাশনাল চার্চেস ফেলোশীপ অব বাংলাদেশ এর বিশপ ড.আরবার্ট পি মৃধা প্রমুখ।

সংলাপ/০৩/০৫/০০১/আ/হো

সম্পর্কিত পোস্ট