শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে আবারও ক্রিকেটে ফিরেছেন তামিম

প্রকাশ: ৭ জুলাই ২০২৩ | ৬:৪৭ অপরাহ্ণ আপডেট: ৭ জুলাই ২০২৩ | ৬:৪৭ অপরাহ্ণ
প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে আবারও ক্রিকেটে ফিরেছেন তামিম

অবশেষে অবসর ভেঙে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরেছেন তামিম ইকবাল। একদিনের ব্যবধানেই সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করলেন তিনি। শুক্রবার (৭ জুলাই) গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে আলোচনার পর এই কথা জানান বাঁহাতি এই ওপেনার।

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে তামিম বলেন, আজ দুপুরবেলায় আমাকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী তার বাসায় দাওয়াত করেছিলেন। উনার সঙ্গে অনেকক্ষণ আমরা আলোচনা করেছি। উনি আমাকে নির্দেশ দিয়েছেন খেলায় ফিরে আসতে। আমি আমার রিটয়ারমেন্ট এই মুহূর্তে তুলে নিচ্ছি। কারণ আমি সবাইকে না বলতে পারি কিন্তু দেশের যে সবচেয়ে বড় ব্যক্তি তাকে না বলা আমার পক্ষে অসম্ভব। তাতে অবশ্যই পাপন ভাই ও মাশরাফি ভাইয়ের বড় ভূমিকা ছিল। মাশরাফি ভাই আমাকে ডেকে নিয়েছেন। পাপন ভাই সঙ্গে ছিলেন। প্রধানমন্ত্রী আমাকে দেড়মাসের জন্য একটা ছুটিও দিয়েছেন। আমি যেন মানসিকভাবে আরেকটু ফ্রি হতে পারি।

অনেকটা হুট করেই গতকাল (৬ জুলাই) আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় বলেন তামিম। চট্টগ্রামে সংবাদ সম্মেলন করে এই সিদ্ধান্তের কথা জানান তিনি। তখন গড়গড়িয়ে জল পড়ছিল তার চোখ থেকে। পরে বিসিবির পক্ষ থেকে জানানো হয়, তামিমের সঙ্গে যোগাযোগ করতে চেয়েও ব্যর্থ হন তারা। নাফিস ইকবালের মাধ্যমে ফিরে আসার আহবান জানানো হয়। কিন্তু সাড়া দেননি তামিম।

‘ভিন্ন ভিন্ন’ কারণের কথা বললেও নির্দিষ্ট করে কিছু বলেননি তামিম। তবে তার ঘনিষ্ঠ সূত্রে জানা গেছে, অধিনায়কত্ব নিয়ে অনিশ্চয়তা ও ফিটনেস ইস্যুতে আগে থেকেই চাপে ছিলেন।

পরে আফগানিস্তানের বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডের দিন একটি পত্রিকাকে সাক্ষাৎকার দেন পাপন। সেখানে পুরো ফিট না হয়েও খেলবেন, এমন মন্তব্যের জন্য তামিমের সমালোচনা করেন। সেটিই তামিমের সিদ্ধান্তকে চূড়ান্ত করে।

তামিমের অবসরের ঘোষণায় জরুরি বোর্ড সভা ডাকে বিসিবি। নতুন অধিনায়ক না দিয়ে চলতি সিরিজে ভারপ্রাপ্ত হিসেবে লিটন দাসকে দায়িত্ব দিয়েছে বোর্ড। নতুন অধিনায়ক না দিয়ে তামিমের জন্য পথ খোলা রেখেছে বোর্ড। গতকাল সংবাদ সম্মেলনে এমনটি জানিয়েছিলেন বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসান পাপান।

এনিয়ে কথা বলতে আজ তামিমকে গণভবনে ডেকেছিলেন প্রধানমন্ত্রী। সঙ্গে ছিলেন বিসিবি সভাপতি ও সাবেক অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজাও। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে প্রায় ঘণ্টা তিনেক আলাপের পর অবসরের সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসেন তামিম। তবে আফগানিস্তানের বিপক্ষে বাকি দুই ম্যাচে খেলছেন না তিনি। আপাতত দেড় মাসের মতো সময় বিশ্রামে থাকবেন। জানা গেছে, কিছুদিন পর অবকাশ যাপনে দুবাই যাবেন এই ক্রিকেটার। সবকিছু ঠিক থাকলে এশিয়া কাপ দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরতে পারেন তামিম।

সম্পর্কিত পোস্ট