শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

পানির দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্ত বাতিল চেয়ে ওয়াসাকে চিঠি

প্রকাশ: ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২২ | ৬:৩৩ অপরাহ্ণ আপডেট: ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২২ | ৬:৩৩ অপরাহ্ণ
পানির দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্ত বাতিল চেয়ে ওয়াসাকে চিঠি

পানির দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্ত বাতিলের দাবি জানিয়ে ঢাকা ওয়াসার এমডি বরাবর চিঠি দিয়েছে বাংলাদেশ নাগরিক সমাজ। রোববার রাজধানীর কারওয়ান বাজারে ওয়াসা ভবনে ওয়াসার এমডিসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় এ চিঠি দেয় সংগঠনটি।

নাগরিক সমাজের আহ্বায়ক মহিউদ্দিন আহমেদ এর নেতৃত্বে ১০ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল ওয়াসার কর্মকর্তাদের সঙ্গে দুপুর থেকে বিকেল পর্যন্ত সভা করে। ১৩ ফেব্রুয়ারি ওয়াসা কার্যালয়ের সামনে নাগরিক সমাবেশ করলে সংগঠনটিকে আলোচনার আমন্ত্রণ জানায় ওয়াসা।

বাংলাদেশ সাধারণ নাগরিক সমাজের আহ্বায়ক মহিউদ্দিন আহমেদ বলেন, আমরা ঢাকা ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) তাকসিম এ খান বরাবর চিঠি দিয়ে পানির দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্ত বাতিলের দাবি জানিয়েছি। সেই সঙ্গে জনস্বার্থে আরও বেশ কিছু দাবি তুলে ধরেছি। তারা আমাদের কথা শুনে আশ্বস্ত করেছেন যে, সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিকট দাবি তুলে ধরবেন।

চিঠিতে কয়েক দফা দাবি উল্লেখ করা হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, আমাদের অন্যান্য দাবির মধ্যে রয়েছে, মানসম্পন্ন নিরবিচ্ছিন্ন পানি সরবরাহ করতে হবে। সেবা প্রদানে অনিয়ম দুর্নীতি ও গাফিলতি বন্ধ করতে হবে। ওয়াসার অডিট রিপোর্ট গণমাধ্যমে প্রকাশ করতে হবে। উৎপাদন খরচ ও সরবরাহ সম্পর্কে নাগরিকদের পূর্বে অবগত করে গণশুনানির মাধ্যমে মূল্যবৃদ্ধি সিদ্ধান্ত নিতে হবে। সামাজিক অবস্থা বিবেচনা ও পর্যালোচনা করেই কেবলমাত্র দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্ত সরকারের কাছে পাঠাতে হবে।

পানির দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্ত বিষয়ে গত ৯ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর ওয়াসা ভবনের সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে ঢাকা ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) তাকসিম এ খান জানিয়েছিলেন, পানির দাম ন্যূনতম ২০ শতাংশ বাড়ানোর জন্য সরকারের কাছে প্রস্তাব করা হয়েছে। যদি সরকার এরচেয়ে বেশি বাড়তে চায় সেক্ষেত্রে ওয়াসার কোনো আপত্তি নেই।

গত দুই বছরে দুবার আবাসিক ও বাণিজ্যিক পর্যায়ে পানির দাম বাড়ায় ঢাকা ওয়াসা। এবারও আরেক দফায় পানির দাম বাড়ানোর প্রস্তাব করা হয়েছে। ২০০৯ সালের পর থেকে এ পর্যন্ত মোট ১৪ বার ওয়াসার পানির দাম বাড়ানো হয়েছে।

বর্তমানে আবাসিক ক্ষেত্রে প্রতি এক হাজার লিটার পানির দাম পড়ছে ১৫ টাকা ১৮ পয়সা। এ মূল্য বাড়িয়ে ২১ টাকা ২৫ পয়সা করার প্রস্তাব করা হয়েছে ওয়াসার বোর্ড সভায়। বাণিজ্যিক সংযোগের ক্ষেত্রে প্রতি এক হাজার লিটার পানির বর্তমান দাম ৪২ টাকা। এর দাম বাড়িয়ে ৫৮ দশমিক ৮ টাকা করার প্রস্তাব করা হয়েছে।

সম্পর্কিত পোস্ট