রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

ঘন কুয়াশায় পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌপথে ফেরি বন্ধ, চরম দুর্ভোগ

প্রকাশ: ২৩ ডিসেম্বর ২০২১ | ১১:১৬ পূর্বাহ্ণ আপডেট: ২৩ ডিসেম্বর ২০২১ | ১১:১৬ পূর্বাহ্ণ
ঘন কুয়াশায় পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌপথে ফেরি বন্ধ, চরম দুর্ভোগ

ঘন কুয়াশার কারণে মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া ও রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া নৌপথে গতকাল বুধবার মধ্যরাত থেকে ফেরি চলাচল বন্ধ রয়েছে। যাত্রী ও যানবাহন নিয়ে মাঝনদীতে আটকা পড়েছে একটি ফেরি। এ ছাড়া পাটুরিয়া ঘাট এলাকায় আটকা পড়েছে যাত্রীবাহী দেড় শতাধিক বাস, দুই শতাধিক ব্যক্তিগত বিভিন্ন গাড়ি এবং চার শতাধিক পণ্যবাহী ট্রাক। দীর্ঘ সময় কনকনে শীত ও কুয়াশার মধ্যে চরম দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন আটকে পড়া যাত্রী ও যানবাহনের শ্রমিকেরা।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন করপোরেশনের (বিআইডব্লিউটিসি) আরিচা কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌপথে ১৬টি ফেরির মধ্যে ১৪টি সচল রয়েছে। যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে বাকি ২টি ফেরি পাটুরিয়ায় ভাসমান কারখানায় মেরামত করতে দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে গতকাল রাত ১০টার পর থেকে পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌপথের অববাহিকায় পদ্মা নদী কুয়াশায় আচ্ছন্ন হয়ে পড়ে। একপর্যায়ে কুয়াশার তীব্রতা বেড়ে গেলে রাত সাড়ে ১২টার দিকে ফেরি চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এ সময় যাত্রী ও যানবাহন নিয়ে দৌলতদিয়া ঘাট থেকে ছেড়ে আসা গোলাম মওলা নামের একটি রো রো ফেরি মাঝপদ্মায় নোঙর করতে বাধ্য হয়। এদিকে পাটুরিয়া প্রান্তে আটটি ও দৌলতদিয়া প্রান্তে ছয়টি ফেরি অবস্থান করছে।
পারাপার বন্ধ থাকায় ঢাকা আশপাশের বিভিন্ন জেলা থেকে ছেড়ে আসা যাত্রীবাহী বাস, ব্যক্তিগত বিভিন্ন গাড়ি ও পণ্যবাহী গাড়ি পাটুরিয়া ঘাট এলাকায় আটকা পড়ে। যাত্রীবাহী এসব বাস পাটুরিয়া-উথলী সংযোগ সড়কে নদী পারাপারের অপেক্ষায় রয়েছে। ব্যক্তিগত বিভিন্ন গাড়ি পাটুরিয়ার পাঁচ নম্বর ঘাট থেকে আরসিএল মোড় পর্যন্ত দীর্ঘ সারিতে আটকা পড়েছে। এ ছাড়া পণ্যবাহী গাড়িগুলো পাটুরিয়ায় টার্মিনাল, পাটুরিয়া-উথলী সড়ক ও উথলী মোড় এলাকায় সারিবদ্ধভাবে রাখা হয়েছে।

কুয়াশায় পারাপার বন্ধ থাকায় কনকনে শীতের মধ্যে চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন যাত্রী ও চালকেরা। বিশেষ করে এই শীতে ঘাট এলাকায় খোলা জায়গায় দীর্ঘ সময় আটকে থেকে বৃদ্ধ, নারী ও শিশুদের দুর্ভোগ বেশি হচ্ছে। এ ছাড়া শৌচাগার ও খাবার হোটেলের অপ্রতুলতা তাঁদের এ দুর্ভোগ আরও বাড়িয়েছে।

সম্পর্কিত পোস্ট