শুক্রবার, ১ মার্চ ২০২৪, ১৮ ফাল্গুন ১৪৩০

গৃহবধূর ব্যক্তিগত ছবি-ভিডিও অনলাইনে ছড়িয়ে যুবক গ্রেপ্তার

প্রকাশ: ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ | ৩:১২ অপরাহ্ণ আপডেট: ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ | ৩:১২ অপরাহ্ণ
গৃহবধূর ব্যক্তিগত ছবি-ভিডিও অনলাইনে ছড়িয়ে যুবক গ্রেপ্তার

গৃহবধূর ব্যক্তিগত ছবি ও ভিডিও অনলাইনে ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগে চট্টগ্রাম নগরের টাইগারপাস এলাকায় অভিযান চালিয়ে শেখ রাসেল (২৮) নামে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব)। চট্টগ্রাম সাইবার ট্রাইব্যুনালে দায়ের হওয়া একটি মামলার ওয়ারেন্টের ভিত্তিতে শনিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

শেখ রাসেল নগরের ডবলমুরিং থানার মতিয়ারপুল এলাকার বাসিন্দা। তার বাবার নাম মৃত ফজল হক।

র‍্যাব জানায়, ভুক্তভোগী গৃহবধূ স্বামী-সন্তান নিয়ে ডবলমুরিং থানা এলাকায় থাকেন। তার স্বামী সৌদি আরব প্রবাসী। ২০১৭ সালে তার স্বামী দেশে আসেন। এ সময় অভিযুক্ত রাসেলের সঙ্গে তার স্বামীর সম্পর্ক হয়। এ সূত্রে প্রায় সময় রাসেল ভুক্তভোগীর বাসায় আসা-যাওয়া করতেন। এ সময় রাসেল তার মায়ের চিকিৎসার কথা বলে ভুক্তভোগীর স্বামীর কাছ থেকে ৩ লাখ টাকা ধার নেন।

বিদেশে যাওয়ার আগে ভুক্তভোগীর স্বামী রাসেলকে বলে দেয় ঋণের টাকা প্রতি মাসে কিছু কিছু করে গৃহবধূকে দেয় ও তার সংসারের যাতে খোঁজ রাখে। এই সুবাদে রাসেল প্রায়ই ভুক্তভোগীর বাড়িতে টাকা দেওয়ার জন্য যেতেন। তাদের সংসারের খোঁজ-খবর নিতেন। এভাবে ভুক্তভোগীর সঙ্গে রাসেলের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক গড়ে ওঠে।

ভুক্তভোগী গৃহবধূর অভিযোগ, যাতায়াতের সুবাদে বিভিন্ন সময় রাসেল তার ব্যক্তিগত ছবি ও ভিডিও ধারণ করে। এরপর এসব ছবি অনলাইনে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপনের প্রস্তাব দেয়। বিষয়টি নিয়ে গৃহবধূ ডবলমুরিং থানায় জিডি করেন।

জিডির পরিপ্রেক্ষিতে পুলিশ রাসেলকে ডেকে মোবাইল থেকে ছবি ও ভিডিও ডিলিট করে দেন। এ ধরনের কাজ না করার জন্য বারণ করে। কিন্তু রাসেল ক্ষিপ্ত হয়ে তার কাছে থাকা কিছু ছবি ও ভিডিও অনলাইনে এবং ভুক্তভোগীর আত্মীয়-স্বজনের কাছে ছড়িয়ে দেন। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী চট্টগ্রাম সাইবার ট্রাইব্যুনালে মামলা দায়ের করেন। মামলায় রাসেলের বিরুদ্ধে পরোয়ানা জারি হয়।

চট্টগ্রাম র‍্যাবের সিনিয়র সহকারী পরিচালক মো. নুরুল আবছার বলেন, আসামি রাসেল পলাতক থাকায় তাকে গ্রেপ্তারে ভুক্তভোগী র‍্যাবের সঙ্গে যোগাযোগ করে। এরপর র‍্যাব অভিযান চালিয়ে শনিবার অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করে। আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য তাকে সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানান চট্টগ্রাম র‍্যাবের এ কর্মকর্তা।

সম্পর্কিত পোস্ট