মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ১ শ্রাবণ ১৪৩১

কানাডা প্রবাসী বীর মুক্তিযোদ্ধা সাধন দাস আর নেই

প্রকাশ: ১০ মার্চ ২০২২ | ১২:৪২ অপরাহ্ণ আপডেট: ১০ মার্চ ২০২২ | ১২:৪২ অপরাহ্ণ
কানাডা প্রবাসী বীর মুক্তিযোদ্ধা সাধন দাস আর নেই

ষাটের দশকের ছাত্রনেতা, বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রকৌশলী সাধন দাস আর নেই। ২ মার্চ সকালে কানাডার মিসিসাগার একটি হাসপাতালে তিনি মারা যান।

মৃত্যুকালে সাধন দাস স্ত্রী শিবানী দাস, কন্যা অদিতি দাশ, পুত্র অনুপম দাশ, আত্মীয়-স্বজনসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। ৫ মার্চ মিডোভেল ফিউনারেল সেন্টারে তার শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়।

সাধন দাস ১৯৪৮ সালে কুমিল্লায় জন্মগ্রহণ করেন। কুমিল্লার ঐতিহ্যবাহী বিদ্যালয় ঈশ্বর পাঠশালা থেকে এসএসসি এবং কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করেন।

এসএসসিতে সাধন দাস কুমিল্লা মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ডে মেধাতালিকায় স্থান পেয়েছিলেন। ১৯৭০ সালে তিনি বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তড়িৎ প্রকৌশল বিষয়ে পড়াশোনা শেষ করেন।

সাধন দাস ষাট ও সত্তরের দশকে ছিলেন বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়নের একজন অগ্রগামী নেতা। ১৯৭১ সালে তিনি মুক্তিযুদ্ধে অংশ নেন। স্বাধীনের পর তিনি গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য ও গণযোগাযোগ মন্ত্রণালয়ে মেইনটেইন্যান্স ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে যোগ দেন। এ সময় তিনি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সান্নিধ্য লাভ করেন।

১৯৭৫ সালে সাধন দাস শিবানী দাসকে বিয়ে করেন। তাদের মেয়ে অদিতি বর্তমানে কানাডার কেন্দ্রীয় সরকারের অধীনে চাকরিরত এবং ছেলে ড. অনুপম দাশ ক্যালগেরির মাউন্ট রয়্যাল ইউনিভার্সিটিতে অর্থনীতির অধ্যাপক।

ব্যক্তিজীবনে সাধন দাস ছিলেন অসাম্প্রদায়িক, প্রগতিশীল ও মানবিক মূল্যবোধসম্পন্ন। জীবনের শেষ পর্যন্ত তিনি মনেপ্রাণে মৌলবাদকে ঘৃণা করতেন। স্বপ্ন দেখতেন অসাম্প্রদায়িক, দুর্নীতি, শোষণ ও বঞ্চনামুক্ত সমাজের।

সংলাপ-০৩/১০/০০৩/আ/আ

সম্পর্কিত পোস্ট