মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১

কানাডায় ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ‘মেগা ঈদ মেলা’

প্রকাশ: ১২ এপ্রিল ২০২২ | ১০:১০ পূর্বাহ্ণ আপডেট: ১২ এপ্রিল ২০২২ | ১০:১০ পূর্বাহ্ণ
কানাডায় ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ‘মেগা ঈদ মেলা’

আসন্ন পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে কানাডার ক্যালগেরিতে আয়োজন করা হচ্ছে মেগা ঈদ মেলা। মুসলিম কমিউনিটিসহ ক্যালগেরির প্রবাসী বাঙালিদের ঈদের কেনাকাটাকে আরও সহজ করতে ইকবাল রহমান রিয়েল এস্টেট এ মেলার আয়োজন করছে।

প্রবাসী বাঙালিদের মধ্যে ঈদ মেলাকে সাফল্যমণ্ডিত করতে ক্যালগেরির উৎসব সুইটস অ্যান্ড রেস্টুরেন্টে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

এতে উপস্থিত ছিলেন, আয়োজক ইকবাল রহমান, বারাকা এ্যপায়ারেলের স্বত্বাধিকারী আরিফা রব্বানী, হুরে জান্নাত মৌ, কমিউনিটি ব্যক্তিত্ব কলামিস্ট উন্নয়ন গবেষক ও সমাজতাত্ত্বিক বিশ্লেষক মো. মাহমুদ হাসান। এছাড়াও আলবার্টার প্রথম বাংলা অনলাইন পোর্টাল ‘প্রবাস বাংলা ভয়েস’ এর প্রধান সম্পাদক আহসান রাজীব বুলবুল।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য ইকবাল রহমান বলেন, মেগা ঈদ মেলার মূল লক্ষ্য হচ্ছে সবাই যেন এ মেলা থেকে তাদের পছন্দের পোশাক ও বিশেষ করে নারীরা তাদের পোশাকসহ সাজসজ্জার সবকিছু কিনতে পারেন। বাংলাদেশ ইন্ডিয়া ও পাকিস্তানের পোশাক এখানে পাওয়া যাবে। মেগা ঈদ মেলা দুপুর ১২টা ৩০ মিনিটে শুরু হয়ে রাত ৯টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত চলবে।

মেলায় থাকবে রঙ বেরঙের বাহারি শাড়ি, বিভিন্ন ধরনের পোশাকের স্টল, জুয়েলারি সরঞ্জাম, হেনা/মেহেদীসহ আকর্ষণীয় বিভিন্ন ধরনের উল্লেখযোগ্য সংখ্যক স্টল। এছাড়া মেলায় ইফতারির সুব্যবস্থা রয়েছে।

তিনি আরও বলেন, করোনোকালে গত দুই বছরে আমরা ঘরবন্দি ছিলাম, এ অবস্থায় অনেকেই একে অপরের সঙ্গে মিলিত হতে পারিনি, অনেকেই কেনাকাটা থেকে ছিলাম বঞ্চিত। পবিত্র ঈদুল ফিতরের আগে সবাই মেগা ঈদ মেলায় অংশগ্রহণ করে পরিবারের সদস্যদের চাহিদা অনুযায়ী কেনাকাটা করে ঈদের আনন্দ উপভোগ করবেন এটাই আমার বিশ্বাস।

বারাকা এ্যপায়ারেলের স্বত্বাধিকারী আরিফা রব্বানী জানান, মেলায় আমরা নতুন নতুন কালেকশন নিয়ে আসব। এর মধ্যে নারীদের প্রচুর শাড়ি কাপড় ও সেলোয়ার কামিজের পাশাপাশি ছেলেদের পাঞ্জাবি ও ফতুয়া থাকবে। তিনি জানান, পরম করুণাময়ের কাছে অশেষ অশেষ কৃতজ্ঞতা যে দীর্ঘ দুই বছর পর নতুন করে মেলায় আবার সবার সঙ্গে দেখা হবে। তিনি তার স্টলের ক্রেতাদের জন্য এ বছর সারপ্রাইস উপহারের পাশাপাশি ডিসকাউন্টের বিশেষ ব্যবস্থা রেখেছেন।

মৌ কালেকশনের স্বত্বাধিকারী হুরে জান্নাত মৌ জানান, আমাদের স্টলে অনেক ধরনের এক্সক্লুসিভ ড্রেস, শাড়ি, পাঞ্জাবি ও গয়নার আইটেমসহ বাচ্চাদের সব ধরনের পোশাক থাকবে। এছাড়া বিভিন্ন অফারসহ রয়েছে বিশেষ মূল্যছাড়।

কমিউনিটি ব্যক্তিত্ব কলামিস্ট, উন্নয়ন গবেষক ও সমাজতাত্ত্বিক বিশ্লেষক মো. মাহমুদ হাসান বলেন, ধনী দরিদ্রের ভেদাভেদ ভুলে আসছে ঈদে সবাই আমরা আনন্দ উপভোগ করব। সেই লক্ষ্যে ইকবাল রহমানের এই উদ্যোগ নিঃসন্দেহে প্রবাসীদের ঈদের কেনাকাটায় উদ্বুদ্ধ করবে বলেই আমার বিশ্বাস। আর আমি এটিকে শুধু কেনাকাটার মেলা হিসেবেই দেখছি না, প্রবাসের মাটিতে দেশীয় সামাজিক সংস্কৃতি, মূল্যবোধ আর কমিউনিটিতে একে অপরের সহমিলনের এক অপূর্ব সেতুবন্ধন হিসেবে দেখছি। ঈদের কেনাকাটা আর উপহার সামগ্রী বিনিময়ের মাধ্যমে যে পারিবারিক আদান-প্রদানের সংস্কৃতি তৈরি হয় সেটি আমাদের সমাজ ব্যবস্থার শত বছরের ঐতিহ্য।

দিনব্যাপী মেগা ঈদ মেলায় কেনাকাটার পাশাপাশি প্রবাস জীবনে বাঙালিদের মনের খোরাক ও নির্মল আনন্দ দিতে শতভাগ সফল হবে এমনটাই মনে করছেন আয়োজকরা।

সম্পর্কিত পোস্ট