মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ১ শ্রাবণ ১৪৩১

ইসরায়েলের আরও একটি সামরিক স্থাপনায় হামলার দাবি হিজবুল্লাহর

প্রকাশ: ৭ জুলাই ২০২৪ | ৮:৫৯ অপরাহ্ণ আপডেট: ৭ জুলাই ২০২৪ | ৮:৫৯ অপরাহ্ণ
ইসরায়েলের আরও একটি সামরিক স্থাপনায় হামলার দাবি হিজবুল্লাহর

ইসরায়েলের আরও একটি সামরিক স্থাপনায় হামলার দাবি জানিয়েছে লেবাননের সশস্ত্র গোষ্ঠী হিজবুল্লাহ। লেবাননের গোষ্ঠীটির দাবি, তারা ক্ষেপণাস্ত্র দিয়ে সীমান্তের কাছে ইসরায়েলের বায়াদ ব্লিদা সামরিক চৌকিতে সরাসরি হামলা চালিয়েছে।

এর আগে হিজবুল্লাহ পৃথক বিবৃতিতে সীমান্তের কাছে ইসরায়েলে অন্য তিনটি সেনাঘাঁটিতে গোলাবর্ষণ করার কথা জানায়।

দক্ষিণ লেবাননের ইয়ারুন ও মারুন আল-রাসের এলাকায় আর্টিলারি হামলা চালানোর পরে হিজবুল্লাহ এই হামলা চালায়।

গাজায় যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর থেকেই ফিলিস্তিনিদের প্রতি সমর্থন জানিয়েছে ইসরায়েলে হামলা চালাচ্ছে হিজবুল্লাহ। এর জবাবে ইসরায়েল হামলা চালাচ্ছে। এতে দুই পক্ষের মধ্যেই হতাহতের ঘটনা ঘটছে।

এদিকে গত ৭ অক্টোবরের পর অবরুদ্ধ গাজায় ইসরায়েলের হামলায় ৩৮ হাজার ১৫৩ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন ৮৭ হাজার ৮২৮ জন।

অন্যদিকে এতদিন ধরে ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু বিরোধী বিক্ষোভে উত্তাল ছিল ইসরায়েল। এবার এই তালিকায় যুক্ত হলেন অন্যান্য মন্ত্রীরাও। ইসরায়েলি গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, দেশটির প্রতিরক্ষামন্ত্রী ইয়োভ গ্যালেন্ট, পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইসরায়েল কাতজ, ইসরায়েলের পার্লামেন্ট নেসেটের স্পিকার আমির ওহানা, অর্থনীতি বিষয়ক মন্ত্রী নির বারকাত, পরিবহনমন্ত্রী মিরি রেগেভ, কৃষিমন্ত্রী আভি ডিচটার, জাতীয় নিরাপত্তা বিষয়কমন্ত্রী ইজহাক ওয়াসেরলফের বাড়ির সামনে বিক্ষোভ হয়েছে।

সাম্প্রতিক সময়ে গাজায় সংঘাত আরও দীর্ঘ হওয়া ও জিম্মিদের মুক্ত করতে ব্যর্থ হওয়ায় বিক্ষোভের মুখে পড়েন নেতানিয়াহু। তার সরকারের পদত্যাগ দাবি করেছেন বিক্ষোভকারীরা।

সম্পর্কিত পোস্ট