শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০

ইমরান খানকে গ্রেফতারে বাড়ি ঘেরাও, উত্তপ্ত পাকিস্তান

প্রকাশ: ১৪ মার্চ ২০২৩ | ৮:৩৭ অপরাহ্ণ আপডেট: ১৪ মার্চ ২০২৩ | ৮:৩৭ অপরাহ্ণ
ইমরান খানকে গ্রেফতারে বাড়ি ঘেরাও, উত্তপ্ত পাকিস্তান

পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে গ্রেফতারে তার জামান পার্কের বাড়ি ঘেরাও করেছে পুলিশ। তবে সমর্থকদের বাধার মুখে এখনো বাড়িটিতে ঢুকতে পারেনি তারা। বাড়িতে ঢোকার চেষ্টা করলে পিটিআই কর্মীদের সঙ্গে কয়েক দফা সংঘর্ষও হয়েছে। এসময় জলকামান ব্যবহার করলেও ইমরান খানের বাড়ি থেকে সর্বোচ্চ ৯০ মিটার দূরত্বে পৌঁছাতে পেরেছে পুলিশ।

এ অবস্থায় পিটিআই চেয়ারম্যান সব কর্মী-সমর্থককে রাস্তায় নেমে আসার আহ্বান জানালে পরিস্থিতি আরও উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। মঙ্গলবার (১৪ মার্চ) এক ভিডিওবার্তায় তিনি বলেছেন, তারা ভাবছে আমি গ্রেফতার হলে জাতি ঘুমিয়ে পড়বে। আপনাদেরই তাদের ভুল প্রমাণ করতে হবে।

জানা গেছে, তোশাখানা মামলায় আদালতের জারি করা পরোয়ানার ভিত্তিতে ইমরান খানকে গ্রেফতার করতে গেছে পুলিশ। তার বিরুদ্ধে চলমান চারটি মামলার মধ্যে কেবল এই একটিতেই গ্রেফতারি পরোয়ানা বাতিল হয়নি।

জিও নিউজ জানিয়েছে, ইমরান খানকে গ্রেফতারের জন্য ইসলামাবাদ পুলিশের একটি দল সোমবার থেকেই লাহোরে রয়েছে। তবে পিটিআই চেয়ারম্যানের গ্রেফতার ঠেকাতে তার বাড়ি ঘিরে রেখেছে বিপুল সংখ্যক কর্মী-সমর্থক। এ অবস্থায় জলকামান ব্যবহার করে তাদের ছত্রভঙ্গ করার চেষ্টা করে পুলিশ। তারা বর্তমানে ইমরান খানের বাড়ি থেকে ৯০ মিটার দূরে রয়েছে।

ডনের খবরে বলা হয়েছে, পিটিআই কর্মীদের সঙ্গে সংঘর্ষে ইসলামাবাদের ডিআইজি আহত হয়েছেন। পুলিশের ছোড়া টিয়ারগ্যাসের ক্যানন ইমরান খানের বাড়ির ভেতরে গিয়ে পড়েছে।

পিটিআই নেতা শাহ মাহমুদ কোরেশি প্রথমে বলেছিলেন, ইমরান খান জামান পার্কের বাড়িতে রয়েছেন। তবে পরে বলেছেন, পিটিআই প্রধান সেখানে নেই। এছাড়া পুলিশের কাছে ইমরান খানের গ্রেফতারি পরোয়ানা দেখতে চেয়েছেন সাবেক অর্থমন্ত্রী।

পিটিআই নেতা ফাওয়াদ চৌধুরী বলেছেন, ইমরান খানের গ্রেফতারি পরোয়ানা ইসলামাবাদ হাইকোর্টে চ্যালেঞ্জ করা হয়েছে।

পাকিস্তান মুসলিম লীগ (নওয়াজ) নেতা মরিয়ম নওয়াজ বলেছেন, কোনো পুলিশ কর্মকর্তা আহত বা ক্ষতিগ্রস্ত হলে তার জন্য ইমরান খানই দায়ী থাকবেন।

তবে ভিডিওবার্তায় সাবেক প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, আমার যদি কিছু হয় এবং আমাকে জেলে পাঠানো হয় বা আমাকে হত্যা করা হয়, তবে আপনাদের প্রমাণ করতে হবে, আপনারা ইমরান খানকে ছাড়াই সংগ্রাম করবেন এবং এই চোরদের দাসত্ব মেনে নেবেন না।

এর আগে, গত ২৮ ফেব্রুয়ারি পিটিআই চেয়ারম্যান ইমরান খানের নামে জামিন অযোগ্য গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন ইসলামাবাদের একটি নিম্ন আদালত। তোশাখানা মামলার শুনানিতে ধারাবাহিকভাবে অনুপস্থিতির কারণে তার বিরুদ্ধে এই পরোয়ানা জারি করা হয়।

সেই পরোয়ানা গত সপ্তাহে স্থগিত করেন ইসলামাবাদ হাইকোর্ট এবং ইমরান খানকে ১৩ মার্চ নিম্ন আদালতে উপস্থিত হওয়ার নির্দেশ দেন। কিন্তু সেদিনও আদালতে হাজির হননি পিটিআই চেয়ারম্যান। এর পরিপ্রেক্ষিতেই মঙ্গলবার তাকে গ্রেফতার করতে যায় পুলিশ।

এ নিয়ে গত ১০ দিনের মধ্যে দ্বিতীয়বার ইমরানকে গ্রেফতারে জামান পার্কের বাড়িতে হানা দিলো পুলিশ। গত ৫ মার্চ কৌশলে পুলিশের হাত থেকে গ্রেফতার এড়িয়েছিলেন পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী।

সম্পর্কিত পোস্ট