শুক্রবার, ১ মার্চ ২০২৪, ১৮ ফাল্গুন ১৪৩০

ইউক্রেনে হাসপাতালে মিসাইল হামলায় নিহত ৪

প্রকাশ: ১৫ মে ২০২৩ | ১০:০৭ অপরাহ্ণ আপডেট: ১৫ মে ২০২৩ | ১০:০৭ অপরাহ্ণ
ইউক্রেনে হাসপাতালে মিসাইল হামলায় নিহত ৪

ইউক্রেনের হাসপাতালে রাশিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় চারজন নিহত হয়েছেন। দেশটির পূর্বাঞ্চলীয় আদভিভকা শহরে এ ঘটনা ঘটে।

সোমবার (১৫ মে) আল জাজিরা জানিয়েছে, আদভিভকা শহরে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে রুশ বাহিনী। দনেৎস্ক অঞ্চলের গভর্নর পাভলো কিরিলেনকো এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

বার্তা মাধ্যম টেলিগ্রামে দেওয়া এক পোস্টে তিনি লেখেন- সোমবার আদভিভকা শহরে মিসাইল হামলা চালিয়েছে রাশিয়ার সেনারা। এ হামলার আঘাত করেছে শহরের হাসপাতালে।

এর আগে গতকাল রোববার (১৪ মে) দনেৎস্ক অঞ্চলে কামান হামলা চালায় রাশিয়া। এ সময় আহত হন সাতজন। এ তথ্যও নিশ্চিত করেন পাভলো কিরিলেনকো।

এদিকে ইউক্রেনে আরও ট্যাংক এবং সাঁজোয়া যান পাঠানোর প্রতিশ্রুতি দিয়েছে ফ্রান্স। একইসঙ্গে সেগুলো ব্যবহার করতে ইউক্রেনীয় সৈন্যদের প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণও দেবে দেশটি।

রোববার গভীর রাতে প্যারিসে রাষ্ট্রপতি ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁর সঙ্গে এক নৈশভোজে যোগ দেন ইউক্রেনের রাষ্ট্রপতি ভলোদিমির জেলেনস্কি। সেখানে ম্যাক্রোঁ এ প্রতিশ্রুতি দেন। প্রায় তিন ঘণ্টা আলোচনার পর সোমবার এক যৌথ বিবৃতিতে দুই রাষ্ট্রপতি বলেছেন, আগামী সপ্তাহে ফ্রান্স বেশ কয়েকটি ব্যাটালিয়নকে প্রশিক্ষণ দেবে। এএমএক্স-১০আরসি-সহ কয়েকশ সাঁজোয়া যান এবং হালকা ট্যাংক এই প্রশিক্ষণের অংশ থাকবে।

বিবৃতিতে, রাশিয়াকে দেওয়া বর্ধিত নিষেধাজ্ঞার বিষয়েও সতর্ক করা হয়। এতে আরও বলা হয়, রাশিয়ার অবৈধ আগ্রাসন চালিয়ে যাওয়ার ক্ষমতাকে দুর্বল করতে দেশটির ওপর আরও নিষেধাজ্ঞা বাড়ানোর বিষয়ে ইউক্রেন এবং ফ্রান্স একমত।

ইউক্রেনকে প্রায় তিন বিলিয়ন ডলারের সামরিক সরঞ্জাম দেবে আরেক মিত্র দেশ জার্মানি। এর মধ্যে রয়েছে ট্যাঙ্ক, অ্যান্টি-এয়ারক্রাফট সিস্টেমস ও গোলাবারুদ। এ বিষয়ে জার্মান প্রতিরক্ষামন্ত্রী বরিস পিস্টোরিয়াস বলেছিলেন, ২ দশমিক ৭ বিলিয়ন ইউরোর (২ দশমিক ৯৫ বিলিয়ন ডলার) সামরিক সহায়তার প্যাকেজের মাধ্যমে জার্মানি দেখাতে চায়, তারা ইউক্রেনের সমর্থন গুরুত্ব দিয়ে দেখছে।

শুরুতে কিয়েভের জন্য সামরিক সহায়তার বিষয়ে ধীরগতিতে থাকলেও বর্তমানে জার্মানি ইউক্রেনের সবচেয়ে বড় অস্ত্র সরবরাহকারী দেশ হয়ে উঠেছে।

সম্পর্কিত পোস্ট