মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১

আমিরাতে বাংলাদেশিদের বৃহৎ শিল্প প্রকল্প উদ্বোধন

প্রকাশ: ৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৯:৫৬ পূর্বাহ্ণ আপডেট: ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ১:৪৯ পূর্বাহ্ণ
আমিরাতে বাংলাদেশিদের বৃহৎ শিল্প প্রকল্প উদ্বোধন

আল মেহাম টেকনিক্যাল সার্ভিস ও আল মেহাম বিল্ডিং কন্ট্রাক্টিং কোম্পানি নামে দুটি বাংলাদেশি অবকাঠামো নির্মাণ প্রতিষ্ঠানের উদ্যোগে সংযুক্ত আরব আমিরাতে বাংলাদেশি শ্রমিকদের কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করতে আরও একটি নতুন প্রকল্পের উদ্বোধন করা হয়েছে।

সোমবার আমিরাতের উম্ম আল কোয়েন প্রদেশে ২ লাখ ১৫ হাজার স্কয়ার ফিট জায়গা নিয়ে নতুন এই শিল্প প্রকল্প উদ্বোধন করেন ফুজাইরাহ প্রদেশের শেখ পরিবারের সদস্য শেখ মোহাম্মদ বিন সোহায়েল আল ইয়ামাহি। এসময় কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক সাজ্জাদুর রহমান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী তাবিবুর রহমান সহ উম্ম আল কোয়েন শেখ পরিবারের সদস্য ও প্রতিষ্ঠানের অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

দীর্ঘ আট বছর ধরে সংযুক্ত আরব আমিরাতে কাজ করছে আল মেহাম টেকনিক্যাল সার্ভিস ও আল মেহাম বিল্ডিং কন্ট্রাক্টিং কোম্পানি। বর্তমানে এই প্রতিষ্ঠান দুটি দেশটির শারজা, আজমান ও উম্ম আল কোয়েন প্রদেশে ১৪টি বহুমুখী প্রকল্প পরিচালনা করছে।

প্রকল্প উদ্বোধন শেষে কোম্পানির কর্মকর্তারা

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী তাবিবুর রহমান বলেন, শুরু থেকে আমরা বাংলাদেশি শ্রমিকদের প্রাধান্য দিয়ে আসছি। নতুন এই প্রকল্পে প্রতিদিন শতাধিক কর্মী কাজ করতে পারবে। নয় মাসব্যাপী এই প্রকল্পের নির্মাণ কাজে প্রায় ২৭ হাজার শ্রমিকের কর্ম ঘন্টা হিসাব করা হবে। ইতিমধ্যে দেশ থেকেও বেশ কিছু শ্রমিক আনার ব্যবস্থা করা হয়েছে। তবে বিমানবন্দরে র‌্যাপিড পিসিআর টেস্ট চালু না হওয়ায় তারা দেশেই আটকে আছেন।

তাবিবুর রহমান আরও বলেন, দীর্ঘদিন ধরে আমরা আমিরাতে অবকাঠামো নির্মাণ ব্যবসার সঙ্গে জড়িত। আমাদের উদ্দেশ্য প্রবাসে দেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করা, রেমিট্যান্স বৃদ্ধি করা। আমিরাতের শারজা, আজমান ও উম্ম আল কোয়েন প্রদেশে ১৪টি প্রকল্পে কাজ চলছে। আমরা পুরো মধ্যপ্রাচ্যে কোম্পানির কার্যক্রম পরিচালনার পরিকল্পনা তৈরি করছি।

কোম্পানির আরেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক সাজ্জাদুর রহমান বলেন, আমরা বাংলাদেশিদের অগ্রাধিকার দিচ্ছি। কারণ, এখানে দেশপ্রেম নিহিত আছে। নতুন প্রকল্প ঘিরে আমাদের আরও শ্রমিক চাহিদা আছে। ফ্লাইট পুনরায় সচল হলে শ্রমিকদের এই চাহিদা মেটাতে পারবো। আটকে পড়া শ্রমিকরা আমিরাতে ফিরলে কাজের গতি বাড়বে।

সম্পর্কিত পোস্ট