শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

অস্ট্রেলিয়ায় বাংলাদেশ লেডিস ক্লাবের আন্তর্জাতিক নারী দিবস পালন

প্রকাশ: ১৩ মার্চ ২০২২ | ৬:৫৬ অপরাহ্ণ আপডেট: ১৩ মার্চ ২০২২ | ৬:৫৬ অপরাহ্ণ
অস্ট্রেলিয়ায় বাংলাদেশ লেডিস ক্লাবের আন্তর্জাতিক নারী দিবস পালন

অস্ট্রেলিয়ায় “নারীর সুস্বাস্থ্য ও জাগরণ” এ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে সিডনির বিডি হাব মিলনায়তনে বাংলাদেশ লেডিস ক্লাবের আয়োজনে আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।বিডি কমিউনিটি হাব এর মিলনায়তনে অস্ট্রেলিয়া ও বাংলাদেশের জাতীয় সঙ্গীতের মধ্যে দিয়ে অনুষ্ঠান শুরু হয়। জাতীয় সংগীত পরিবেশন করেন শ্যামা রেইন।

প্রবাসী নারীদের সংগঠন বাংলাদেশ লেডিস ক্লাব অস্ট্রেলিয়া’র আন্তর্জাতিক নারী দিবস ২০২২ উপলক্ষে আয়োজিত এই অনুষ্ঠানটির সঞ্চালনায় ছিলেন কামরুন চৌধুরী লিন্ডা। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আনোলাক চ্যান্টিভং এমপি, ম্যাকুরিফিল্ডের সংসদ সদস্য, ড. সাবরিন ফারুকী, নারী সংগঠক ও কাউন্সিলর, মিসেস গেইল টেইলর, রোটারি ক্লাব ইঙ্গেলবার্নের প্রাক্তন সভাপতি, ফেরদৌসি ওবায়েদুল্লাহ, ব্যবস্থাপনা পরিচালক হাউস অফ সাকিনা, তাসনিয়া আলম হান্নান, সহ- প্রতিষ্ঠাতা এরাইসজ ফাউন্ডেশন ও ডা. জেসি চৌধুরী, প্রাক্তন সভাপতি বাংলাদেশ মেডিকেল সোসাইটি অফ নিউ সাউথ ওয়েলস।

বাংলাদেশ লেডিস ক্লাব অস্ট্রেলিয়ার সভাপতি রাহেলা আরেফিন তার সূচনা বক্তব্যে বলেন, আমরা দৃঢ়ভাবে আশা করছি নারীর প্রতি সব রকম বৈষম্য ও অন্যায়-অবিচারের অবসান ঘটিয়ে একটি সুখী, সমৃদ্ধ ও গণতান্ত্রিক বিশ্ব গড়ার প্রত্যয় নিয়ে নারীদের এগিয়ে চলা আরও বেগবান হবে। পরে উপস্থিত অতিথিরা তাদের বক্তব্য পেশ করেন। এত অল্প সময়ে ক্লাবটি যেভাবে তাদের কর্মকাণ্ড নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে, তারা ভূয়সী প্রশংসা করেন এবং তাদের পথচলায় সর্বাত্মক সহযোগিতার আশ্বাস দেন তারা।

অনুষ্ঠানের প্রথম পর্বে হালকা নাস্তা পরিবেশনের পর বাংলাদেশ লেডিস ক্লাব অস্ট্রেলিয়া’র পক্ষ থেকে বাংলাদেশী নব নির্বাচিত বাংলাদেশি বংশোভূত কাউন্সিলরদের মঞ্চে আমন্ত্রণ জানানো হয়। তাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মাসুদ চৌধুরী, মুহাম্মাদ মাসুদ খলিল, ড. সাবরিন ফারুকি। পরে তাদের সম্মাননা সূচক ক্রেস্ট প্রদান করা হয়।

এছাড়াও বিভিন্ন সামাজিক কর্মকাণ্ডে অবদানের জন্য মিসেস লায়লা হক এবং নতুন প্রজন্মের তাসনিয়া আলম হান্নান ও নাবিলা আফ্রিদি স্রোতস্বিনীকে সম্মামনা ক্রেস্ট প্রদান করা হয়। বিডি কমিউনিটি হাবকে ক্রেস্ট প্রদান করা হয়।

বাংলাদেশ লেডিস ক্লাব অস্ট্রেলিয়ার জেনারেল সেক্রেটারি শিরিন আক্তার মুন্নি বলেন, নারীদের প্রতি শ্রদ্ধা ও তাদের কাজের স্বীকৃতি দানের পাশাপাশি অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক ও সামাজিক সাফল্য অর্জনে আরও বেশি মনোনিবেশ করে কিভাবে তা তরান্বিত ও ইতিবাচক রূপ দেওয়া যায় সেই লক্ষে কাজ করার জন্য সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিতে সকলের প্রতি অনুরোধ জানান।

এই পর্বে আরও বক্তব্য রাখেন জন্মভূমি বেতারের সিইও সৈয়দ আকরাম উল্লাহ। তিনি আগামীতে বাংলাদেশ লেডিস ক্লাব অস্ট্রেলিয়া নারীদের কল্যাণে আরও বেশি কাজ করবে এই আশা ব্যক্ত করে জন্মভূমি বেতারের পক্ষ থেকে সকল প্রকার সহযোগিতার আশ্বাস দেন।

বক্তব্য রাখেন জন্মভূমি টেলিভিশনের নিউজ ডিরেক্টর নাইম আবদুল্লাহ। তিনি সকল প্রকার কর্মকাণ্ডে বাংলাদেশ লেডিস ক্লাব অস্ট্রেলিয়াকে সহযোগিতা করার আশ্বাস দেন। নিউ সাউথ ওয়েলস এর লিজমরে একটি লাইব্রেরি সাম্প্রতিক বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় রোটারি ক্লাব ইঙ্গেলবার্ন এর আহ্বানে জন্মভূমি টেলিভিশনের পক্ষ থেকে তিনি ১০০ ডলার অনুদান প্রদান করেন।

অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বে বাংলাদেশ লেডিস ক্লাব অস্ট্রেলিয়ার সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট ডা. শায়লা ইসলামের পরিচালনায় নারীদের সমসাময়িক রোগ ও তার প্রতিরোধ শীর্ষক সেমিনারে অংশ নেন ডা. নাজমুন নাহার ও ডা. ফাহিমা সাত্তার। তারা নারীদের স্বাস্থ্য সম্পর্কিত বিভিন্ন বিষয়ের দিক গুলো তুলে ধরেন ও পরামর্শ দেন।

সবশেষে সাংস্কৃতিক পর্বে আবিদা আসওয়াদের সঞ্চালনায় কবিতা আবৃতি করেন নুসরাত জাহান স্মৃতি, পলি ফরহাদ ও ফারজানা আহমেদ। নৃত্য পরিবেশন করেন শ্রেয়সী দাস। গান পরিবেশন করেন নাবিলা আফ্রিদি স্রোতস্বিনী ও মুন।

অনুষ্ঠানের শেষ পর্বে কাজী সামসুল আলম রুবেল ও সৈয়দ আজিম চঞ্চল রাতের খাবার পরিবেশন করেন ও পরে কেক কাটা হয়। বাংলাদেশ লেডিস ক্লাব অস্ট্রেলিয়ার সভাপতি রাহেলা আরেফিন ও সাধারণ সম্পাদক শিরীন আক্তার মুন্নি সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করেন।

সংলাপ-১৩/০৩/০১০/আ/আ

সম্পর্কিত পোস্ট